স্বামীর লাথিতে স্ত্রীর সন্তান প্রসব

স্বামীর লাথিতে স্ত্রীর সন্তান প্রসব
[প্রতীকী ছবি]

একাধিক তরুণীর সঙ্গে পরকীয়া স্বামীর। বারবার বাধা দিয়েও স্বামীকে ফেরাতে পারেননি স্ত্রী। এই নিয়ে স্ত্রীকে একাধিকবার পিটুনি খেতে হয়েছে স্বামী আজিজের হাতে। শেষ পর্যন্ত পেটে স্বামীর লাথিতে স্ত্রীর চার মাসের সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়ে যায়।

ঘটনাটি ঘটে উপজেলার দুপ্তারা ইউনিয়নের নতুন বান্টি গ্রামে। নির্যাতিত নারীকে আশঙ্কাজনকভাবে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী নারীর নাম ইয়াসমিন। পাষণ্ড আজিজুল হক নতুন বান্টি গ্রামের আব্দুল্লাহর ছেলে। ইয়াসমিনের বাবার বাড়ি পার্শ্ববর্তী পাঁচরুখী গ্রামে। স্ত্রী ও পলিথিনে করে সন্তানকে নিয়ে হাসপাতালে যান স্ত্রীর ভাই হোসেনসহ আত্মীয়রা। এ সময় পালিয়ে যায় আজিজুল।

জানা গেছে, ১৭ বছর আগে আব্দুলাহের ছেলে আজিজ ও কুদ্দুসের মেয়ে ইয়াসমিনের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে তিন সন্তান রয়েছে। এর পরও একাধিক নারীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়ায় আজিজ। এ কারণে আগেও একাধিকবার স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। একই কারণে সোমবার দুপুরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে স্ত্রী ইয়াসমিনকে মারধর শুরু করেন আজিজ। পরে পেটে লাথি দিলে চার মাসের বাচ্চা ভূমিষ্ঠ হয়ে পড়ে। এ সময় দ্রুত প্রতিবেশীদের সহায়তায় স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান স্ত্রীর স্বজনরা। পরে দুই জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ইয়াসমিনের ভাই জানান, হাসপাতালে নেওয়ার পথে নবজাতক মারা গেছে। আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x