অপহরণের পর রোহিঙ্গা কিশোরী হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ২

অপহরণের পর রোহিঙ্গা কিশোরী হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ২
অপহরণের পর রোহিঙ্গা কিশোরী হত্যার অভিযোগে গ্রেফতারকৃতরা। ছবি: ইত্তেফাক

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গা কিশোরী অপহরণ করে হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ান (এপিবিএন)।

সোমবার (৮ মার্চ) রাত সোয়া ১০টার দিকে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পে এ অভিযান চালানো হয় বলে জানান কক্সবাজার ১৬ এপিবিএন-এর অধিনায়ক এসপি মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পের বি-ব্লকের মো. আজিমুল্লাহ’র ছেলে রহমত উল্লাহ (২৩) এবং একই ক্যাম্পের সি-ব্লকের রহমত উল্লাহ'র স্ত্রী সানজিদা আক্তার (৩৫)। গ্রেফতারকৃতরা পরস্পরের আত্মীয় বলে জানিয়েছে এপিবিএন।

সূত্র জানায়, গত ২ মার্চ সকালে টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে তাদের ঘরের পাশ থেকে নিখোঁজ হয় শাহিনুর আক্তার নামের আট বছর বয়সী রোহিঙ্গা শিশু। নিখোঁজের তিনদিন পর গত ৫ মার্চ বিকালে ক্যাম্পটি সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকা থেকে শিশুটির ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে এপিবিএন। শিশুটির একটি হাতও শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলো।

এসপি তারিকুল বলেন, রোহিঙ্গা শিশুকে অপহরণ করে খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার ব্যাপারে প্রাথমিক কিছু তথ্য পায় এপিবিএন। এছাড়া নিহত শিশুর বাবা-মায়ের দেওয়া তথ্যে গত সোমবার রাতে টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পে অভিযান চালায় এপিবিএন এর একটি দল। এতে বসত ঘর থেকে অপহৃত শিশুকে হত্যার ঘটনায় জড়িত অভিযোগে নারীসহ দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা পরস্পরের আত্মীয়।

গ্রেফতারদের টেকনাফ থানায় করা হত্যা মামলায় আসামি দেখিয়ে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x