রাজশাহীতে টিসিবির পণ্য কিনতে প্যাকেজ বিড়ম্বনায় ক্রেতারা

রাজশাহীতে টিসিবির পণ্য কিনতে প্যাকেজ বিড়ম্বনায় ক্রেতারা
নগরীর রাণীবাজারে টিসিবির খোলা ট্রাকের সামনে মানুষের দীর্ঘ লাইন। ছবি: ইত্তেফাক

রমজান উপলক্ষ্যে রাজশাহীতে নিত্যপণ্য বিক্রি শুরু করেছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। নগরের বিভিন্ন পয়েন্টে খেজুর-ছোলাসহ ছয়টি পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। তবে অভিযোগ উঠেছে, অধিকাংশ ডিলার টিসিবির পণ্য প্যাকেজ আকারে বিক্রি করছেন। এতে ক্রেতারা বিড়ম্বনায় পড়েছেন। যদিও টিসিবির পক্ষ থেকে এমন কোনো নিয়ম নেই বলে দাবি করা হচ্ছে।

নগরীর বেশ কয়েকটি পয়েন্টে দেখা গেছে, রমজান উপলক্ষ্যে টিসিবির পণ্য দিচ্ছে সরকার। চিনি, সয়াবিন তেল, মসুর ডাল, খেজুর, ছোলা ও পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে। প্রথমে রাজশাহী জেলা ও মহানগর মিলে ৩০টি পয়েন্টে টিসিবির পণ্য বিক্রি চলছে। নগরীর শহিদ কামারুজ্জামান চত্বরের (গোরহাঙ্গা রেলগেট) ডিলার ইশরাফিল আলী টিসিবির পণ্য প্যাকেজ আকারে বিক্রি করছেন। তিনি জানান, শুক্রবার বিক্রি বন্ধ ছিল। বৃহস্পতিবার ৫৭০ টাকা প্যাকেজে টিসিবির পণ্য বিক্রি করেছেন। এতে দুই কেজি করে চিনি, সয়াবিন তেল, মসুর ডাল, ছোলা ও পেঁয়াজ ছিল। টিসিবি অফিস থেকে এভাবে বিক্রি করতে বলেছে বলে জানান তিনি। প্যাকেজ ছাড়া কেউ না নিলে তাকে দেওয়া হবে না। রাশেদ নামের এক ক্রেতা বলেন, তেল, চিনি ও ডাল প্রয়োজন। কিন্তু পেঁয়াজের দরকার নেই। বাধ্য হয়ে পেঁয়াজও কিনতে হচ্ছে।

নিজেদের ব্যবসায়িক সুবিধায় ডিলাররা এভাবে ইচ্ছেমতো পণ্য বিক্রি করছেন। আর এতে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন নিম্নআয়ের ক্রেতারা। নগরের আমচত্বর এলাকায় টিসিবির আঞ্চলিক কার্যালয়ের সামনেই টিসিবির পণ্য বিক্রি হয়। সেখানে ডাল, তেল ও চিনি কিনতে পবা উপজেলার মথুরা গ্রাম থেকে আসা কৃষক শহীদুল জানান, বাড়ি থেকে এখানে যাতায়াতের ভাড়া ৩০ টাকা। বাজারের চেয়ে কম দামে পণ্য পাবেন বলে এখানে এসেছেন। সয়াবিন তেল নিতে চান। কিন্তু পেঁয়াজ বা অন্য পণ্যগুলো কেনার টাকা তার কাছে নেই। অথচ এগুলো নিতে না চাওয়ায় তাকে লাইন থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। বিক্রয়কর্মী বলেছেন, সবই নিতে হবে। একই অবস্থা অন্যদের ক্ষেত্রেও। ভুক্তভোগীর সংখ্যা অনেক।

এদিকে ডিলার আজিম শেখ বলেন, যারা একটা দুইটা পণ্য নেবে তাদের সবার শেষে দেওয়া হবে বলে জানানো হচ্ছে। অপেক্ষা করতে হবে। প্যাকেজ না নিলে পণ্য দেওয়া হবে না—এমন কথা বলা হয়নি দাবি করেন তিনি। টিসিবির আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান রবিউল মোর্শেদ বলেন, ডিলারদের বলা হয়েছে, প্যাকেজে পণ্য বিক্রি করা যাবে না। কয়েকটি জায়গা থেকে অভিযোগ পেলাম। সরেজমিনে তদন্তে সত্যতা পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x