টাকার অভাবে ডাক্তার না দেখাতে পেরে অভিমানে আত্মহত্যা

টাকার অভাবে ডাক্তার না দেখাতে পেরে অভিমানে আত্মহত্যা
রাঙ্গাবালী। ছবি: গুগল ম্যাপ থেকে

টাকার অভাবে ডাক্তার দেখাতে না পেরে মনের কষ্টে পরিবারের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন এক শ্রমিক। পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের নয়ারচর গ্রামে কেওড়া গাছের সাথে গামছা পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় আনোয়ার হাওলাদার (৫৫) তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত ব্যক্তি নয়ারচর গ্রামের মৃত. নাদুরুজ্জামানের ছেলে। শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) রাতে স্থানীয়রা গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তিনি পেশায় একজন শ্রমিক। ঢাকার কেরানীগঞ্জে একটি ইটের ভাটায় কাজ করতেন। সারাদেশে লকডাউনের কারনে কাজ না থাকায় গত কয়েকদিন আগে বাড়ি চলে আসেন। বাড়িতে এসে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ায় টাকার অভাবে ডাক্তার দেখাতে না পেরে মনের কষ্টে পরিবারের সাথে অভিমান করে বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার দূরে নদীর পাড়ে বনের ভিতরে গিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

স্থানীয় লোকজোন খোঁজাখুঁজি করলে একপর্যায় তাকে বনের ভিতরে দেখতে পেয়ে চরমোন্তাজ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশকে খবর দিলে তারা গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. মমিনুল ইসলাম জানান, স্বজনদের অভিযোগ না থাকায় লাশের দাফন ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসজেড

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x