আশুলিয়ায় শিশুকে হত্যা করে টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট, গ্রেফতার ১

আশুলিয়ায় শিশুকে হত্যা করে টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট, গ্রেফতার ১
গ্রেফতারকৃত রিপন মিয়া। ছবি: ইত্তেফাক

সাভারের আশুলিয়ায় তোফাজ্জল হোসেন সাজ্জাদ নামের আট বছরের এক শিশুকে হত্যা করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পাশের ফ্ল্যাটের প্রতিবেশী অভিযুক্ত ঘাতক রিপন মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) রাতে বাইপাইল নতুন পাড়া এলাকার আব্দুল মান্নানের মালিকানাধীন ৬ তলা ভবনের ৫ম তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে শিশুটির কম্বলে মোড়ানো মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত রিপন মিয়া (৩০) রংপুর সদর থানার এলাকার শাহ আলম হোসেনের ছেলে। বর্তমানে সে আশুলিয়ায় নিহত শিশু সাজ্জাদের পাশের ফ্ল্যাটে স্ত্রীসহ বসবাস করে আসছিলো। পেশায় পোশাক কারখানার শ্রমিক থাকলেও করোনার কারণে চাকরি হারিয়ে বেকার ছিল রিপন।

নিহত শিশু সাজ্জাদ ভোলা জেলার সদর থানার চন্দ্রাবাদ গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে। সে স্থানীয় আল আমিন মাদরাসায় পড়াশোনা করতো বলে জানা গেছে। পোশাক শ্রমিক বাবা-মায়ের সঙ্গে আশুলিয়ার বাইপাইল নতুন পাড়া এলাকার ওই বাড়িতে থাকতো সে।

স্থানীয়রা জানান, শিশু সাজ্জাদের মা খাদিজা বেগম পোশাক কারাখানায় কাজ করেন। কাজে যাওয়ার সময় তিনি সাজ্জাদকে বাসায় রেখে যান। বৃহস্পতিবার ছুটির পরে বাসায় ফিরে ছেলেকে দেখতে না পেয়ে অনেক খোঁজাখুঁজি করেন তিনি। পরে বাথরুমের উপরে ফলস ছাদে কম্বলে মোড়ানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহটি দেখতে পান। এছাড়াও ঘরের টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার চুরি হয়।

নিহতের মা খাদিজা বেগম অভিযোগ করে বলেন, গতকাল পাশের বাসার পাশের ফ্ল্যাটের রিপন আমার কাছে ১ হাজার টাকা ধার চেয়েছিলেন। আমি না দেওয়ায় তিনি আমার ছেলেকে খুন করেছেন এবং বাসা থেকে ১৪ আনা সোনা ও ৫ হাজার টাকা নিয়েছেন। আমি আমার ছেলের হত্যার বিচার চাই।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রাশিদ জানান, নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাতেই ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মূলত টাকা ও মালামাল চুরির উদ্দেশ্যে রিপন মিয়া প্রতিবেশীর ঘরে ঢুকে। এসময় কর্মজীবী বাবা-মা দুইজন বাইরে থাকলেও শিশু সাজ্জাত তখন ঘরেই ছিল। চুরির বিষয়টি ধরা পড়ার ভয়ে সে শিশুকে হত্যা করে লাশ কম্বল দিয়ে পেঁচিয়ে বাথরুমের ফলস ছাদে লুকিয়ে রাখে। এঘটনায় নিহত শিশুর পিতা ইউসুফ হোসেন বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার দুপুরে ঘাতক রিপনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x