হেফাজত নেতা নোমানের সঙ্গে দুই নারীর অনৈতিক সম্পর্কের প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ

হেফাজত নেতা নোমানের সঙ্গে দুই নারীর অনৈতিক সম্পর্কের প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ
হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ নেতা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী। ছবি: ইত্তেফাক

মামুনুল হকের পর এবার হেফাজতে ইসলামের আরেক শীর্ষ নেতা জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর সঙ্গে দুই নারীর অনৈতিক সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছে পুলিশ। হেফাজতের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির প্রচার সম্পাদক ফয়েজীকে গত বুধবার কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে আটক করে চট্টগ্রাম জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল।

সম্প্রতি হাটহাজারীতে ঘটে যাওয়া নাশকতার ঘটনায় মদদদাতা হিসেবে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পুলিশ জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হাটহাজারীর তাণ্ডবে মদদ এবং নিজের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন এই হেফাজত নেতা।

বৃহস্পতিবার জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এ বিষয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ফয়েজী বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও দুজন নারীর সঙ্গে তার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। এদের মধ্যে একজন প্রবাসীর স্ত্রী, অপরজন স্বামী পরিত্যক্তা। তাদের সঙ্গে নিয়মিত ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে চ্যাট করতেন ফয়েজী। সময় ও সুযোগ বুঝে শারীরিকভাবে মিলিত হতেন। ফয়েজীর মোবাইল ফোনে কললিস্ট ও মেসেঞ্জার যাচাই করে এসব ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক ইত্তেফাককে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে হাটহাজারী থানায় হামলাসহ নাশকতার ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন ফয়েজী। তিনি এসব ঘটনার পরিকল্পনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন এবং তা বাস্তবায়নে ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি তাণ্ডবে অর্থের জোগান দিয়েছেন বলেও পুলিশকে জানিয়েছেন। এছাড়া আমরা তার মোবাইল ফোন চেক করে দুজন নারীর সঙ্গে তার অনৈতিক সম্পর্কের প্রমাণ পেয়েছি। মোবাইলে তারা অশ্লীল বার্তা আদানপ্রদান করতেন। সামাজিক সমস্যা বিবেচনা করে আমরা ওই নারীদের পরিচয় প্রকাশ করছি না।

এদিকে, হাটহাজারী থানায় দায়ের হওয়া তিনটি নাশকতার মামলায় বৃহস্পতিবার জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক জানান, ফয়েজীকে হাটহাজারী থানার তিনটি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। শুনানি শেষে বিচারক ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x