চুরির অভিযোগে ৫ কিশোরকে একসঙ্গে বেঁধে লাঠিপেটা

চুরির অভিযোগে ৫ কিশোরকে একসঙ্গে বেঁধে লাঠিপেটা
জাল চুরির অভিযোগে পাঁচ কিশোর জেলেকে এক রশিতে বেঁধে লাঠিপেটা করা হচ্ছে [ছবি: সংগৃহীত]

নোয়াখালীর হাতিয়ায় জাল চুরির অভিযোগে পাঁচ কিশোর জেলেকে এক রশিতে বেঁধে বেধড়ক লাঠিপেটা করার ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার (১৬ মে) হাতিয়া উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের দক্ষিণ সুল্লকিয়া গ্রামে জেলে পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

লাঠিপেটার শিকার পাঁচ কিশোর হলো, সহদেব জলদাস (১৬), শ্যামল জলদাস (১৬), শিশুপদ জলদাস (১৭), রতন জলদাস (১৫) ও কিরণ জলদাস (১৭)। লাঠিপেটার পাশাপাশি তাদের ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন স্থানীয় সালিশদারগণ।

এ ঘটনার মোবাইল ফোনে ধারণকৃত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ১ মিনিট ১১ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে দেখা যায়, স্থানীয় কিছু নারী-পুরুষের সামনে কিশোরদেরকে বেধড়ক লাঠিপেটা করছেন গ্রামপুলিশ আমির হোসেন। এ সময় পাঁচ কিশোর ও তাদের পরিবারের নারী সদস্যদের আত্মচিৎকার করতে দেখা যায়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোর শিশুপদ জলদাসের বাবা হরিপদ জলদাস বাদী হয়ে হাতিয়া থানায় গ্রামপুলিশসহ ছয় জন সালিশদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনায় হাতিয়া থানা পুলিশ চার জনকে গ্রেফতার করেছেন।

হাতিয়া থানার ওসি মো. আবুল খায়ের জানান, গ্রাম্য সালিশে গ্রাম পুলিশ আমির হোসেনকে খবর দিয়ে নিয়ে ১ হাজার টাকা দিয়ে সালিশদারেরা ৫ কিশোরকে লাঠিপেটা করার আদেশ দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ৪ সালিশদারকে গ্রেফতার করেছেন।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x