রাঙামাটিতে বন্যহাতির আতঙ্কে গ্রামবাসী

রাঙামাটিতে বন্যহাতির আতঙ্কে গ্রামবাসী
রাঙ্গামাটি: নানিয়ার চরে দলছুট হওয়া একটি বন্যহাতি —ইত্তেফাক

রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় দলচ্যুত হওয়া একটি বন্যহাতির আতঙ্কে ভুগছেন কয়েকটি গ্রামের মানুষ। বন্যহাতিটি কখন কোথায় আক্রমণ করে- এই নিয়ে চিন্তিত হয়ে গত দুই দিন নির্ঘুম রাত কাটাতে হচ্ছে স্থানীয়দের। বৃহস্পতিবার সকালে হাতিটি বগাছড়ি থেকে কালো পাহাড়ের দিকে গেছে বলে ধারণা করছেন স্থানীয়রা। জানা যায়, গত সোমবার খাগড়াছড়ির মহালছড়ি এলাকায় দেখা গিয়েছে প্রাপ্তবয়স্ক এই হাতিটিকে। খাদ্যের সন্ধানে ঘুরতে ঘুরতে পর দিন সকালে রাঙ্গামাটির নানিয়ার চর উপজেলার ফিরিংগিপাড়ায় দিনভর অবস্থান করে।

পরে বিকালে উপজেলার মহাজনপাড়া থেকে এখন ছয়কুড়ি বিলের কাছাকাছি আছে বলে স্থানীয় গ্রামবাসী জানান। সর্বশেষ হাতির অবস্থান সম্পর্কে গ্রামবাসী জানান, বৃহস্পতিবার সকালে হাতিটি উপজেলার বগাছড়ি থেকে কালো পাহাড়ের দিকে রওনা করে। তবে কালো পাহাড়ে গিয়েছে কি না, তা জানা নেই গ্রামবাসীর।

বন্যহাতির সঙ্গে লড়ে বাঁচতে হয় তাদের

ফিরিংগিপাড়া স্থানীয় গ্রামবাসী জীবন রতন চাকমা জানান, হাতিটি এলাকার ধান, আখখেত, কলাগাছ, নারিকেলগাছ, আমবাগানসহ বিভিন্ন বাগানের ক্ষতিসাধন করেছে। এলাকায় একটি পাহাড়ে পানির ঝিরি ছিল, সেখানে কয়েক ঘণ্টা অবস্থান করেছিল বন্যহাতিটি।

নানিয়ার চর বন বিভাগ কর্মকর্তা আজিজুল হক বলেন, আমরা জানতে পেরেছি একটি হাতি দলছুট হয়ে নানিয়ার চরের ছয়কুড়ি নামক এলাকায় অবস্থান করছে। তবে কোথা থেকে এই বন্যহাতিটি এসেছে তা আমাদের জানা নেই। আর হাতিটিকে তার পালে পৌঁছে দেওয়ার মতো পদক্ষেপ আমাদের হাতে নেই।

তবে হাতিটি যাতে গ্রামে ঢুকে মানুষের ক্ষতি করতে না পারে, সেজন্য গ্রামের মানুষকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। গ্রামবাসীকে হাতি তাড়ানোর জন্য ঢাকঢোল বাজানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।’ এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও নিরাপত্তা বাহিনী।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x