চারদিকে পানি, তাই বিকল্পপন্থায় কবর

চারদিকে পানি, তাই বিকল্পপন্থায় কবর
ছবি: ইত্তেফাক

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে দ্বিতীয় দফায় বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়ন। ইউনিয়নের ৫ হাজার পরিবারের ২৫ হাজার মানুষ বর্তমানে পানিবন্দি। এখনো নিয়মিত জোয়ার-ভাটা চলছে ইউনিয়নের ছয়টি ওয়ার্ডের বিস্তীর্ণ এলাকায়। পানিতে পুরো এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় শুকনো মাটির অভাবে মৃতদের দাফন করতে হচ্ছে বিকল্পভাবে। বৃহস্পতিবার প্রতাপনগরে এক ব্যক্তি মারা গেলে অভিনব পন্থায় ইট গেঁথে কবর বানিয়ে তাকে দাফন করা হয়েছে।

জানা যায়, প্রতাপনগর ইউনিয়নের শহিদুল ইসলাম গাজীর ছেলে মাহমুদুল হাসান (৩৪) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৫টায় তার কর্মস্থল কলারোয়ার বাসায় স্ট্রোকজনিত কারণে মারা যান। তার মরদেহ আনা হয় জান্মভূমি প্রতাপনগরে। কিন্তু প্রতাপনগরসহ আশপাশের এলাকা পানির নিচে ডুবে আছে। আসর নামাজের পর জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে কবর না খুঁড়ে বিকল্পভাবে তাকে দাফন করা হয়। জোয়ারের পানি কমে গেলে ইট বিছিয়ে তার ওপরে পলিথিন দিয়ে থরে থরে ইট গেঁথে কংক্রিটের কবর তৈরি করে মাহমুদুলের দাফন সম্পন্ন করা হয়।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x