করোনায় আক্রান্ত হওয়ার স্বামী-স্ত্রীর ঠাঁই মিললো আমবাগানে!

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার স্বামী-স্ত্রীর ঠাঁই মিললো আমবাগানে!
আমবাগানে খোলা জায়গার টিনের চালার নীচে কোনোরকমে থাকার জায়গা হয় তাদের। ছবি: ইত্তেফাক

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় স্ত্রীসহ ভাড়া বাড়ি ছেড়ে বাবার বাসায় যান সোহরাব আলী (৩৫)। কিন্তু বাবার বাড়ি গিয়েও ঘটে বিপত্তি। বাবা বাড়িতে ঠাঁই না দিয়ে সোহরাব আলী ও তার স্ত্রীকে তাড়িয়ে দেন। পরে স্ত্রীসহ বাড়ির পাশের একটি আমবাগানে খোলা জায়গার টিনের চালার নীচে কোনোরকমে থাকার জায়গা হয় তাদের।

রাজশাহীল দুর্গাপুর উপজেলার আলীপুর গ্রামের এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ওই গ্রামের সোনারপাড়ার খয়বর আলীর ছেলে সোহরাব আলীর করোনা শনাক্ত হলেও তার স্ত্রীর করোনা শনাক্ত হয়নি। এরপরও একসাথে থাকার সিদ্ধান্ত নেন তারা।

জানা গেছে, ওই আমবাগানে দু’দিন থাকার পর ৯৯৯ নম্বরে জনৈক ব্যক্তির ফোন পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে দুর্গাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে করোনা আক্রান্ত সোহরাব আলী ও তার স্ত্রীকে আমবাগান থেকে উদ্ধার করেন। পরে সোহরাবের বাবার বাড়ির একটি কক্ষে হোম কোয়ারান্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করেন। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হলে কিছু খাদ্যসামগ্রী উপহার দেওয়া হয় সোহরাব আলীকে।No description available.

দুর্গাপুর থানার ওসি হাশমত আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, করোনা আক্রান্ত হলেও সোহরাব আলীর শারীরিক অবস্থা কিছুটা ভালো হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ সেবন করছেন। এই মহামারীর দুঃসময়ে এমন অমানবিক ঘটনা এড়াতে থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন কাজ করছে।

ইত্তেফাক/এসজেড

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x