কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ঘাটে মানুষের ভিড় 

কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ঘাটে মানুষের ভিড় 
ছবি: ফেকাস বাংলা

করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারের পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আজ শুক্রবার (২৩ জুলাই) থেকে সারাদেশে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। এর মধ্যেই ঈদ করতে গ্রামে যাওয়া মানুষ এখনও কর্মস্থলে ফিরছেন। বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে ভোর থেকেই সাধারণ যাত্রী এবং বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের চাপ রয়েছে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে।

বিশেষ করে ছোট বা ব্যক্তিগত গাড়ি লম্বা লাইন দিয়ে ফেরিতে ওঠার অপেক্ষা করছে। একইভাবে নদী পাড়ি দিয়েও মানুষ আসছেন। তবে সকাল থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) বাংলাবাজার ঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক আক্তার হোসেন বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা সংক্রমণ রোধে শুক্রবার সকাল ছয়টার পর থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে।’

ছবি: ফোকাস বাংলা

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) বাংলাবাজার ঘাটের ব্যবস্থাপক সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী ফেরি চলবে। তবে ফেরিগুলো সীমিত পরিসরে চালানো হবে। জরুরি রোগী, রাষ্ট্রীয় কাজে ব্যবহৃত গাড়ি এবং পণ্যবাহী গাড়ি পারাপার করতেই সীমিত পরিসরে ফেরি চলবে। সাধারণ যাত্রী পারাপার নিষেধ থাকলেও কেউ যদি ফেরিতে উঠে পড়ে, এ ক্ষেত্রে বাধা দেওয়া হবে না।’

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ১৪টি ফেরি চলাচল করছে বলে তিনি জানান।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x