৪ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরি চলাচল শুরু

৪ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরি চলাচল শুরু
মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ফেরিতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত।

বৈরী আবহাওয়ায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ফেরি সার্ভিস ৪ ঘণ্টা বন্ধের পর বিকাল ৪টায় সীমিত আকারে চলাচল আবার শুরু হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দুপুর ১২টায় সমুদ্র বন্দরগুলোতে ৩ নম্বর ও পদ্মা নদীতে ১ নম্বর বিপদ সংকেত থাকায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল সাময়িক বন্ধ রাখা হয়। প্রচণ্ড বাতাসে শিমুলিয়া বন্দরের ৪টি ঘাটের ২টির পন্টুন সরে যায়। এতে ২ ও ৪ নম্বর ঘাটের রেম সরে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ঐ ঘাট দুটিতে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফেরি নোঙ্গর রাখায় ১ নম্বর ঘাট ব্যবহার হচ্ছে না। সকাল থেকে শুধু ৩ নম্বর ঘাট ব্যবহার করে সীমিত ফেরি চলাচল করছিল।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়িতে বিকল্প ফেরি রুট চালু

পরে দুপুর ১২ টায় এই রুটে পুরোপুরি ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আবহাওয়া কিছুটা অনুকূলে আসলে বিকেল ৪টায় সীমিত আকারে আবার ফেরি চলাচল শুরু করা হয়।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের এজিএম মো. শফিকুল ইসলাম জানান, নিম্নচাপের কারণে পদ্মা উত্তাল। নদীতে প্রবল ঢেউ আর স্রোত থাকায় ফেরিগুলো হেলেদুলে ঝুঁকিতে নদী পাড়ি দিচ্ছে। ফেরিগুলো ঠিকমত চলতে পারছে না। ফেরি ঘাটে ফিরতে এবং ছেড়ে যেতে সমস্যা হচ্ছে। বহরের ১৮ ফেরির মধ্যে চলছে ৭টি। বৈরী আবহাওয়ার কারণে এ নৌপথের দুই পারে ৬ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ফেরি চলাচল শুরু

ঘাটে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার হামিদ বলেন, ঢাকা থেকে দক্ষিণবঙ্গে যাওয়া বা দক্ষিণবঙ্গে থেকে ঢাকা ফেরার প্রতিটি প্রাইভেট কার, মাইক্রোতে তারা নজরদারি করছেন। যৌক্তিক কারণ দেখাতে না পারলে জরিমানা করছেন। অনেকেই প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে। যারা বিধিনিষেধ উপেক্ষা করছেন তাদের অর্থদণ্ড দেওয়া হচ্ছে।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x