চাকরি দেওয়ার নামে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

চাকরি দেওয়ার নামে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ
উজিরপুর মডেল থানা। ছবি: সংগৃহীত

চাকরি দেওয়ার কথা বলে বরিশালের উজিরপুরে কিশোরীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে উজিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত মাসুম হাওলাদার বরিশাল মেট্রোপলিটনের এয়ারপোর্ট থানাধীন পাংশা এলাকার আ. ছালাম হাওলাদারের ছেলে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, তালতলী উপজেলার এক দিনমজুরের মেয়ে (১৭) বাবা-মায়ের সাথে অভিমান করে রবিবার বরিশালে আসেন এবং চাকরির খোঁজে এক বন্ধু ফাতেমার কাছে যান। ফাতেমা ঐদিন সন্ধ্যায় উজিরপুর উপজেলার হারতা বাজারের ব্রিজের পাশে স্বপন মণ্ডলের বাড়ির ভাড়াটিয়া মাসুম হাওলাদারের কাছে চাকরি দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায় ভিকটিমকে। ঐ রাতে মাসুম কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

বিষয়টি উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী আরশাদকে জানানো হলে তার নির্দেশে পুলিশ কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে রাতে কিশোরী বাদি হয়ে উজিরপুর মডেল থানায় মাসুম হাওলাদারকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জসিম উদ্দিন জানান, ঐ কিশোরীকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী আরশাদ জানান, মামলা নেওয়া হয়েছে এবং অভিযুক্ত আসামি মাসুমকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x