পাহাড়ধসে নিখোঁজ ছেলে-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার, এখনও নিখোঁজ মা

পাহাড়ধসে নিখোঁজ ছেলে-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার, এখনও নিখোঁজ মা
প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)।

বান্দরবানের চিম্বুকে প্রবল বর্ষণে পাহাড়ধসে একই পরিবারের নিখোঁজ ৩ জনের মধ্যে দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা দুই লাশের মধ্যে রয়েছে ছেলে প্রদীপ ত্রিপুরা ও মেয়ে বাজিরুম ত্রিপুরা। তবে এ ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন মা কৃষ্ণাতী ত্রিপুরা।

বৃহস্পতিবার ভোরে চিম্বুক সড়কের সিলভান ওয়ে রিসোর্টের পাশে সাংঙ্গাই নামক স্থানে তাদের মরদেহ পাওয়া যায়। মিলনছড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল কাদের জিলানী এই খবর নিশ্চিত করেন।

এর আগে বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চিম্বুকের সাংঙ্গাই ত্রিপুরা পাড়ায় প্রবল বর্ষণের সময় পাহাড় ধসে পড়ে। এ সময় মৃত দিয়াম্ব ত্রিপুরার স্ত্রী কৃষ্ণতী ত্রিপুরা (৪৫), তার মেয়ে বাজিরুম ত্রিপুরা (১২) ও ছেলে প্রদীপ ত্রিপুরা (৭) নিখোঁজ হন।

এরপর স্থানীয়রা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। পরের দিন সকালে দুইজনের মরদেহ স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ দুইটি উদ্ধার করে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার (ইউপি) জগদীশ ত্রিপুরা জানান, পাহাড়ি জুম থেকে পাড়ায় ফেরার পথে কৃষ্ণতী ত্রিপুরাসহ ৪ জন ওই পাহাড়ের ঢালুতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। সে সময় প্রবল বর্ষণে পাহাড় ধসে তারা পাহাড়ি ঢলে পড়ে যায়। কৃষ্ণতি ত্রিপুরার ছোট বোন রাম্বতি ত্রিপুরা এই ঘটনায় প্রাণে বেঁচে ফিরলেও অপর তিনজন পাহাড়ি ঢলে ভেসে গেছেন বলে ওই ইউপি মেম্বার জানিয়েছেন।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x