ফতুল্লায় ২৫টি ইটভাটাকে সোয়া কোটি টাকা জরিমানা

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০১৯, ১৬:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

পরিবেশ দূষণ ও ছাড়পত্র না থাকায় ফতুল্লায় ইটভাটাতে অভিযান পরিচালনা করে পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইং। ছবি: ইত্তেফাক

পরিবেশ দূষণ ও ছাড়পত্র না থাকাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে ফতুল্লায় ২৫টি ইটভাটাকে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইং। একই সঙ্গে একটি ইটভাটাকে ভেকু দিয়ে গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। 

বুধবার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার বক্তাবলী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর এ অভিযান চালায়। পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদের নেতৃত্বে অভিযানে অংশ নেন বিপুল সংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মী। 

কাজী তামজীদ আহমেদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে মাত্রাতিরিক্ত ডাস্ট ও কালো ধোঁয়া নির্গত করে পরিবেশ দূষণ এবং অনুমোদন না থাকায় আদর্শ ইটভাটা নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে ভেকু দিয়ে ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ওই এলাকায় অবস্থিত আরো ২৫টি ইটভাটাকে পরিবেশ দূষণ ও ছাড়পত্র না থাকার অভিযোগে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে।

আরো পড়ুন: কর্মবিরতিতে অচল বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়

নারায়ণগঞ্জ পরিবেশ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক নয়ন মিয়া জানান, নারায়ণগঞ্জের সাড়ে তিনশ ইটভাটার মধ্যে মাত্র ৩০ থেকে ৩৫টি ইটভাটা নিয়ম মেনে চলছে। বাকি ১২৮টি ইটভাটা আদালতে রিট করে তাদের ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এছাড়া অবশিষ্ট গুলো চলছে অবৈধভাবে।

ইটভাটা গুলোতে ১২০ এফসি ফিক্সড চিমনি ব্যবহার করার কারণে পরিবেশ দূষণ মাত্রাতিরিক্ত আকার ধারণ করেছে। যার কারণে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড, কার্বন মনো অক্সাইড, সালফার ডাই অক্সাইড, এসপিএমসহ নানা উপাদান মিশে মানবদেহের মারাত্মক ক্ষতি করছে। ফলে ইটভাটা গুলোর আশপাশের সাধারণ মানুষ কিডনি, শ্বাসকষ্টসহ নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। তিনি আরো জানান, নারায়ণগঞ্জের সব ইটভাটাক গুলো নিয়মের আওতায় আনা হবে। 

ইত্তেফাক/অনি