ঢাকা শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬
৩৪ °সে

যশোরে ছেলের হাতে বাবা খুন

যশোরে ছেলের হাতে বাবা খুন
ফাইল ছবি

যশোরের মণিরামপুরে শুক্রবার অর্থসংক্রান্ত বিরোধে ছেলের হাতে খুন হয়েছেন বাবা তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের স্ত্রী, দুই পুত্রবধূসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়। এ ঘটনার পর থেকে ঘাতক ছেলে আনোয়ার নিখোঁজ রয়েছেন।

এলাকাবাসী জানান, তাজুল ইসলামের দুই ছেলে আনোয়ার হোসেন এবং হুমায়ুন কবীর বেশ কয়েকবছর ধরে মালয়েশিয়ায় চাকরি করতেন। ইতোমধ্যে তারা দুই ভাই মালয়েশিয়া থেকে পিতার কাছে প্রায় ১৫ লাখ টাকা পাঠান। সম্প্রতি দুই ছেলে বাড়িতে এসে পিতার কাছে ওই টাকার হিসাব চান। কিন্তু পিতা সেই টাকার হিসাব দিতে পারেননি। এ নিয়ে পিতার সাথে দুই ভাইয়ের ভুল বোঝাবুঝি হয়।

গতমাসে ছোট ছেলে হুমায়ুন কবীর মালয়েশিয়া ফিরে যান। বড় ছেলে আনোয়ার বর্তমানে বাড়িতে রয়েছেন। ওই টাকার হিসাব নিয়ে আনোয়ারের সাথে পিতার ঝগড়া চলে আসছিল। নিহতের ভাই প্রত্যক্ষদর্শী মাজু মিয়া জানান, শুক্রবার তাজুল এবং ছেলে আনোয়ার গ্রামের মসজিদ থেকে জুমার নামাজ আদায় করে বাড়িতে আসেন। দুপুর আড়াইটার দিকে ঘরের মধ্যে ওই টাকা নিয়ে পিতা-ছেলের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ছেলে আনোয়ার হোসেন লোহার শাবল দিয়ে ঘাড়ে এবং পিঠে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তাজুল ইসলাম নিহত হন।

তবে অপর প্রত্যক্ষদর্শী বড় ছেলে আনোয়ারের স্ত্রী মুন্নি খাতুন জানান, টাকা নিয়ে ছেলে এবং পিতার মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্ট্রোক করে পিতার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে বিকেলে মণিরামপুর থানার ওসি (সার্বিক) সহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে খেদাপাড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সালাহ উদ্দিন নিহতের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম, ছোটভাই মাজু মিয়া, বড় পুত্রবধূ মুন্নি খাতুন, ছোট পুত্রবধূ রেহেনা খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসেন।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন