দুদক আসছে, তালা ঝুলিয়ে পালালেন স্টোর কিপার

প্রকাশ : ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৪২ | অনলাইন সংস্করণ

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

দুদকের প্রধান কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

দুদক কর্মকর্তারা হাসপাতাল চত্বরে পৌঁছাতেই ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেলেন সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের স্টোর কিপার ফজলুল হক। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার মোবাইলও বন্ধ পাওয়া গেছে।

বুধবার এ ঘটনা ঘটে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল সংলগ্ন সিভিল সার্জন অফিসে। এ ঘটনায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. রফিকুল ইসলাম।

২০১৭ ও ২০১৮ অর্থ বছরে তিনটি পৃথক টেন্ডারে বরাদ্দকৃত ১৮ কোটি টাকার চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয় না করে তা লোপাট করা হয়েছে, এমন অভিযোগে সাতক্ষীরাসহ জাতীয় পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ নিয়ে সাতক্ষীরার নাগরিক সমাজ আন্দোলন করে। পত্র পত্রিকায় এসব খবর দেখে বুধবার দুদক খুলনা অফিস থেকে সহকারী পরিচালক শাওন মিয়াসহ দুদকের চার কর্মকর্তা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে প্রাথমিক তদন্তে আসেন।

তারা হাসপাতাল চত্বরে পৌছাতেই স্টোর কিপার ফজলুল হক ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যান। ফজলুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে আগের দুটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে দুদক। 

আরও পড়ুন: যুক্তরাজ্যে উচ্চশিক্ষা নিয়েছিলো শ্রীলঙ্কায় হামলাকারী

এ প্রসঙ্গে দুদক কর্মকর্তা শাওন মিয়া জানান, তিনি বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানিয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করেছেন। তিনি জানান, স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নে বরাদ্দ ১৮ কোটি টাকার চিকিৎসা সরঞ্জাম লুণ্ঠন সংক্রান্ত যাবতীয় কাগজপত্র জব্দ করা হয়েছে। 

অপরদিকে সিভিল সার্জন ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, অফিস চলাকালে কোনো কারণ ছাড়াই ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যাবার কারণ দর্শানোর জন্য নোটিশ দেওয়া হবে স্টোর কিপারকে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ