ঝিনাইদহে স্ত্রী হত্যায় স্বামীর ফাঁসি

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৮:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

  যশোর অফিস

ফাঁসি। ফাইল ছবি।

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী সুরুজ আলীর ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক চাদ মোহাম্মদ আব্দুল আলিম আল রাজি এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডিত সুরুজ আলী হরিনাকুন্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের বরকত আলীর ছেলে। 

আদালত সূত্র জানায়, ২০০৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী চম্পা খাতুনকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করে স্বামী সুরুজ ও তার পরিবার। পুলিশ চম্পার লাশ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্ত করায়।

সে সময় হরিনাকুন্ডু থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর নির্যাতনের পর হত্যা প্রমাণিত হয়।

আরও পড়ুনঃ দিনাজপুরে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট শুরু

এ ঘটনায় ২০০৪ সালের ২১ মার্চ হরিনাকুন্ডু থানায় ৪ জনকে আসামি করে চম্পার ভাই ইদ্রিস আলী হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ তদন্ত ও শুনানি শেষে এক নম্বর আসামি সুরুজ আলী দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। বাকি ৩ জন আসামির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস প্রদান করা হয়। খালাসপ্রাপ্ত ৩ নং আসামি বরকত আলী রায় ঘোষণার আগেই মারা যান।

ইত্তেফাক/নূহু