ঢাকা রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
২৭ °সে


সূবর্ণচরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক

সূবর্ণচরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক
ফাইল ছবি

জেলার সুবর্ণচর উপজেলার চর আমানউল্যা ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের দিপু রানী মজুমদার (২০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনার পর তার স্বামী শ্যামল মজুমদার ও তার পরিবারের লোকজন এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। নিহত দিপু রানী চট্টগ্রামের সন্দীপর উপজেলার কালাপানি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়াডের ছিপক মজুমদারের মেয়ে। দুপুর ২টার দিকে পুলিশ শ্যামল মজুমদারের বসত ঘর থেকে দিপু রানীর মৃতদেহ উদ্ধার করে। পরে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হানপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা চরজব্বার থানার এসআই রফিকুল ইসলাম জানান, দিপু রানীর মৃতদেহ শ্যামল মজুমদারের বসতঘরের চকির উপর শোয়া অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক তদন্তে তার গলায় দাগ (আঘাতের চিহ্ন) পাওয়া যায়। এটি হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্ত শেষে বলা যাবে। দিপু রানীর মা-বাবাকে খবর দেয়া হয়েছে তারা আসলে তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো জানান, দিপু রানীর মৃত্যুর খবর পেয়ে ওই এলাকায় বসবাসকারী তার স্বজনরা ওই বাড়ি এসে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে বলে চিৎকার শুরু করলে স্বামী শ্যামল মজুমদার ও তার পরিবারের লোকজন এলাকা থেকে পালিয়ে যায়।

এদিকে নিহতের ছোট ভাই শিমুল মজুমদার অভিযোগ করে বলেন, গত তিন মাস আগে নয়াপাড়া গ্রামের রাখাল মজুমদারের ছেলে শ্যামল মজুমদারের সঙ্গে দিপু রানীর বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। বিয়ের সময় শ্যামলের পরিবারকে ৮০ হাজার টাকা যৌতুক দেয়া হয়। এরপরও বিভিন্ন সময় শ্যামল ও তার বাবা-মা আরো টাকার জন্য দিপুকে মারধর করতো। এসব বিষয় নিয়ে আগামী ৩০ এপ্রিল পারিবারিকভাবে মীমাংসার বসার কথা ছিলো। কিন্তু তার আগেই তারা দিপুকে শারীরিক নির্যাতন করে হত্যা করার পর তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায়।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন