ঢেউ আর স্রোতের টানে হারিয়ে গিয়েছিল রাফিদ

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৯, ২১:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

  কুমিল্লা প্রতিনিধি

সাঁতার কাটতে গিয়ে অতলে হারিয়ে ছিল রাফিদুল ইসলাম রাফিদ। ছবি: ইত্তেফাক

চাঁদপুরের পদ্মা নদীর চরে ভ্রমণে গিয়ে গোসল করতে নদীতে নামার পর নিখোঁজ হয় কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র রাফিদুল ইসলাম রাফিদ। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চাঁদপুরের মেঘনার ডাউন থেকে নৌ-পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। 

বাদ আছর কুমিল্লা নগরীর টমছমব্রিজ ঈদগাহ মাঠে নামাজে জানাজা শেষে টমছমব্রিজ নগর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। রাফিদ কুমিল্লা বন বিভাগের কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের ছেলে।

কলেজের অধ্যক্ষ ড. একেএম এমদাদুল হক জানান, গত বুধবার (১২ জুন) রাফিদুল নিখোঁজ হওয়ার পর চাঁদপুরের নৌ-পুলিশ দিনভর উদ্ধারে নদীতে অভিযান করে। সন্ধ্যা হয়ে গেলে অভিযান স্থগিত করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে নৌ-পুলিশসহ অন্যরা আবার অভিযান শুরু করে। পরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। 

আরও পড়ুন: আছমিনাকে আগুনে পোড়ানোর ঘটনায় শাশুড়ি গ্রেফতার

রাফিদের সহপাঠী রাজিব, সাখাওয়াত, সুদিপ্ত, মিঠু, হাবিব ও জিসান জানায়, তারা আটজন বন্ধু ভ্রমণের উদ্দেশ্যে গত বুধবার সকাল ৮টার দিকে চাঁদপুর যায়। চাঁদপুরের বড়স্টেশন এলাকায় যাওয়ার পর তারা একটি ট্রলারে করে দুপুর ১২টার দিকে ‘মিনি কক্সবাজার’ খ্যাত পদ্মা নদীর মাঝখানে জেগে উঠা চরে ঘুরতে যায়। সেখানে তারা সাঁতার কাটছিল। এক পর্যায়ে ঢেউ আর প্রবল স্রোতের টানে নিখোঁজ হয়ে যায় রাফিদ।

চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসআই হালিম বলেন, আইনগত প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়। 

ইত্তেফাক/অনি