যৌন হয়রানীর প্রতিবাদ করায় নার্সকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ : ২৭ জুন ২০১৯, ১৬:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

নিহত তানজিনা আক্তার। ছবি: ইত্তেফাক

যৌন হয়রানীর প্রতিবাদ করায় ঠাকুরগাঁওয়ে ভাতিজা জীবনের ছুরিকাঘাতে আহত ফুফু তানজিনা আক্তারের (২০) মৃত্যু হয়েছে। দীর্ঘ ৭দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে বৃহস্পতিবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত তানজিনা আক্তার সালন্দর ইউনিয়নের মাদ্রাসা পাড়ার হামিদ আলীর মেয়ে ও উপজেলা শহরের গ্রামীণ চক্ষু হাসপাতালের নার্স (সেবীকা)।

জানা গেছে, গত ২০ জুন সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে কর্মস্থল চক্ষু হাসপাতালে যাওয়ার পথে পিছন থেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তানজিনার পিঠে, বুকে, হাতে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে তার ভাতিজা জীবন। এরপর স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে গুরুতর অবস্থায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য পরদিন (২১ জুন) রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন: স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে ‘স্কুল’ খুলছেন সানি লিওন

তানজিনা আক্তারের বাবা হামিদ আলী অভিযোগ করে বলেন, জীবন প্রতিদিন এলাকার বিভিন্ন মেয়েদের উত্ত্যক্ত করতো। ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীরা আমার মেয়েকে অভিযোগ দেয়। এরপর আমার মেয়ে জীবনকে শাসন করে। এরই জের ধরে জীবন আমার মেয়েকে ছুরিকাঘাত করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশিকুর রহমান বলেন, ঘটনার দিনে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত জীবনকে আটক করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/বিএএফ