স্ত্রী-সন্তানকে গলাকেটে খুন করে স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রকাশ : ২২ জুলাই ২০১৯, ১৬:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

  মাগুরা প্রতিনিধি

পুলিশের গাড়িতে লাশ। হাসপাতালে আহত বিট্টু মজুমদার। ছবি: ইত্তেফাক

স্ত্রী-সন্তানকে গলাকেটে খুন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন স্বামী বিট্টু মজুমদার (৩০)। মাগুরা পৌর এলাকার পারনান্দুয়ালী গ্রামের বউ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সোমবার সকালে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য মাগুরা ২৫০ শয্যা  হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল  ইসলাম জানান, একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন বিটু মজুমদার তার স্ত্রী পুর্নি (২৫) ও তার ১০ মাসের শিশু সন্তান মানবকে নিয়ে। রবিবার রাতের কোন এক সময় স্বামী বিটু তার স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করে নিজে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিজের গলাকেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। 

আরো পড়ুন: টিকিটের টাকা নেই, তাই বিমানের ডানায় যুবক!

সোমবার সকালে তারা ঘুম থেকে না উঠলে এলাকাবাসী দরজা ভেঙ্গে দেখেন তিনজনই গলা কাটা অবস্থায় ঘরে পড়ে রয়েছে। পুলিশ খবর পেয়ে তাদের তিনজনকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাদের  মা ও শিশু সন্তান কে মৃত ঘোষ না করেন। স্বামী বিট্টু আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো জানান, পারিবারিক কারণে এই ঘটনা ঘটেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কারণ বিট্টু হিন্দু ধর্মাবলম্বী ছিলেন। আর তার স্ত্রী পূর্নি মুসলিম ধর্মাবলম্বী ছিলেন। তারা বিয়ে করার কারণে উভয়ের পরিবার বিষয়টি মেনে নেননি। ফলে তারা মাগুরার পারনান্দুয়ালী গ্রামে বউ বাজার এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তাদের মধ্যে প্রায়ই কলহ লেগে থাকতো। পুলিশি তদন্ত চলছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ