বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

কালিহাতীতে পরকীয়ার জেরে প্রবাসী যুবক খুন

কালিহাতীতে পরকীয়ার জেরে প্রবাসী যুবক খুন
কালিহাতী, টাঙ্গাইল। ছবি: গুগল ম্যাপ থেকে

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পরকীয়ার জেরে সৌদি প্রবাসী এক যুবক খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবকের নাম মো. মোশারফ মিয়া (২৫ )। তিনি ঘাটাইল উপজেলার দিগড় ইউনিয়নের মাইদারচালা নয়াবাড়ী গ্রামের মো. সেকান্দার আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত একই গ্রামের সৌদি প্রবাসী মো. ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী নাছিমা আক্তারকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে কালিহাতী থানা পুলিশ।

জানা যায়, গত ৪ আগস্ট রাত থেকে নিখোঁজ ছিল নিহত যুবক। নিখোঁজ হবার পরের দিন ঘাটাইল থানায় জিডি করে তার পরিবার। ঘাটাইল পুলিশ জিডি ও মোবাইল ফোনের কললিস্টের সূত্র ধরে প্রতিবেশী সৌদি প্রবাসী ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী ও কালিহাতী উপজেলার বীরবাসিন্দা গ্রামের মরহুম মেছের আলী মন্ডলের মেয়ে নাছিমাকে ১৬ আগস্ট রাতে আটক করে পুলিশ। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর মোশারফের সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের পরকিয়ার কথা স্বীকার করেন। এ সময় তিনি জানান, গত ৪ আগস্ট তার ভাই আক্তার হোসেনের পরিকল্পনায় ও সহায়তায় কালিহাতী উপজেলার বীরবাসিন্দা এলাকায় মোশারফকে খুন করে একই গ্রামের গজারিয়া বিলে বাঁশের সঙ্গে বেঁধে লাশ ডুবিয়ে রাখে।

ঘাটাইল থানার সহকারী পরিদর্শক মো. শাহিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, 'এসপি স্যারের নির্দেশে ও পরামর্শে কালিহাতী থানায় হত্যা মামলা করা হলে আটককৃত মহিলাকে কালিহাতী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।'

আরও পড়ুন: মিরপুরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা

কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান আল মামুন বলেন, 'কালিহাতী থানায় এ বিষয়ে একটি হত্যা মামলা করেন নিহতের ছোট ভাই সজীব মিয়া। ১৭ আগস্ট গৃহবধূ নাছিমাকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার অপর আসামি আক্তার হোসেনকে আটক ও গজারিয়া বিলে লাশ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।'

সোমবার রাত সোয়া ১০টায় লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানান কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। লাশটি হত্যা মামলার অপর আসামি আক্তার হোসেন গজারিয়া বিল থেকে অন্য কোথাও সরিয়ে ফেলেছে বলে ধারনা করছে তিনি।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত