রাজশাহীতে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি, ভবন ছেড়ে গাছের নিচে ক্লাস

প্রকাশ : ৩১ আগস্ট ২০১৯, ১৯:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

  স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী

লোডশেডিংয়ে গরমে অতিষ্ঠ হয়ে গাছের নিচে ক্লাস করছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: ইত্তেফাক

রাজশাহীতে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে মহানগরবাসী। দিন-রাত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ৭/৮ বার বিদ্যুতের লোডশেডিং হচ্ছে। তবে বিদ্যুৎ বিতরণ কর্তৃপক্ষের দাবি, কোনো লোডশেডিং নেই। লাইন সংস্কার বা কাজের জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হচ্ছে।

এদিকে শনিবার বিকাল ৩টার পর মহানগরীর বুধপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যুৎ না থাকায় শিক্ষার্থীরা বাধ্য হয়ে ক্লাস করছে স্কুল মাঠে। গাছের নিচে মাটিতে বসে তারা ক্লাস করছে।

এসময় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় ক্লাসরুম অন্ধকার হয়ে পড়েছে। আর তীব্র গরম পড়েছে। এ কারণে বাধ্য হয়ে বাইরে ক্লাস করছে তারা।

জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরে রাজশাহী মহানগরী জুড়ে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি লেগেই আছে। পূর্ব কোন ঘোষণা ছাড়াই ঘণ্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। দিনে-রাতে বিদ্যুতের লোডশেডিং হচ্ছে। একদিকে প্রচুর গরম অন্যদিকে লোডশেডিং। দুইয়ে মিলে নগরবাসী ভোগান্তির মধ্যে পড়েছে। এ নিয়ে নেসকোর গ্রাহকদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

আরো পড়ুন: মুক্তি পেতে সময় লাগবে মিন্নির

নগরীর অধিবাসীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ৩/৪ দিন ধরে নগরীতে বিদ্যুতের লোডশেডিং হচ্ছে। দিনরাত মিলিয়ে ৭/৮ বার লোডশেডিংয়ের ভোগান্তি পোহাচ্ছে তারা। 

এ বিষয়ে নর্দার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডের (নেসকো) রাজশাহী ডিভিশন-৪ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুর রশিদ বলেন, রাজশাহীর কোথাও কোনো লোডশেডিং নেই। লাইন সংস্কার বা মেরামতের জন্য কোথাও কোথাও কিছু সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে। এটি স্বাভাবিক ঘটনা।

ইত্তেফাক/জেডএইচ