টয়লেট থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার, মা গ্রেফতার

প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

  সখীপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা

ফাইল ছবি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার রাতে সখীপুর পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সৌখিন মোড় এলাকার আবদুল জলিলের ভাড়াটিয়া বাসার টয়লেট থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতার করা হয়েছে ওই নবজাতকের মা আর্জিনা বেগমকে (৩০)। গর্ভপাতের ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছে। 

মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ৭ বছর আগে আর্জিনার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ৫ বছর বয়সী সন্তান আছে। তিন বছর আগে আজগর আলীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন আর্জিনা। এ ঘটনা জানাজানি হলে দুই বছর আগে আর্জিনার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকে সন্তান আসিফকে নিয়ে পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সৌখিন মোড় এলাকায় আবদুল জলিলের বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করেন।

ডিভোর্সের পর আর্জিনা ও আজগরে সম্পর্ক আরও গভীর হয়। আর্জিনার বাসায় নিয়মিত যাতায়াতও ছিল আজগরের। এ ব্যাপারে বেশ কয়েক দফা সালিশি বৈঠকও করে এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন: আধ্যাত্মিক ভাষায় চিরকুট লিখে নিখোঁজ সেই স্কুলছাত্র উদ্ধার

আর্জিনার ভাই রফিকুল ইসলাম জানান, তাদের অনৈতিক সম্পর্কের কারণে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। গত ৭ সেপ্টেম্বর বিয়ের দাবিতে আজগর আলীর বাড়িতে আর্জিনা অবস্থান নিলে তার ওপর ব্যাপক নির্যাতন চালানো হয়। এক পর্যায়ে আর্জিনা অসুস্থ হয়ে পড়লে ৮ সেপ্টেম্বর তাকে উদ্ধার করে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। কিছুটা সুস্থ হলে সে বাসায় ফিরে আসে। শনিবার সন্ধ্যায় আর্জিনা টয়লেটে গেলে তার গর্ভের সন্তান পড়ে যায়। আজগর আলীর নির্যাতনের কারণেই এ গর্ভপাত হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
 
সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজুল ইসলাম বলেন, নবজাতকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত ও ডিএনএ পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নবজাতকের মাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

ইত্তেফাক/অনি