একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন: নারী প্রার্থীতে আওয়ামী লীগ এগিয়ে

প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৪৫ | অনলাইন সংস্করণ

  অনলাইন ডেস্ক

ফাইল ছবি

এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০ জন নারী প্রার্থীকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। তাদের মধ্যে দুইজন নতুন। অন্যরা আগেও সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। অন্যদিকে, বিএনপি নেতৃাত্বাধীন জোট ১৪ জন নারীকে প্রার্থী দিয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন বিএনপি প্রার্থী ও একজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের। বিএনপির নারী প্রার্থীদের বেশির ভাগই দলটির নেতাদের স্ত্রী। বাকি একজন হলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আবদুল কাদের সিদ্দিকীর মেয়ে কুঁড়ি সিদ্দিকী।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া নারী প্রার্থীরা হলেন:

গোপালগঞ্জ-৩ শেখ হাসিনা, রংপুর-৬ শিরীন শারমিন চৌধুরী, শেরপুর-২ মতিয়া চৌধুরী, ফরিদপুর-২ সাজেদা চৌধুরী, চাঁদপুর-৩ দীপু মনি, ঢাকা-১৮ সাহারা খাতুন, গাজীপুর-৫ মেহের আফরোজ চুমকি, গাজীপুর-৪ সিমিন হোসেন রিমি, মানিকগঞ্জ-২ মমতাজ বেগম, মুন্সিগঞ্জ-২ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, খুলনা-৩ বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, গাইবান্ধা-২ মাহবুব আরা বেগম (গিনি), কুমিল্লা-২ সেলিমা আহমাদ, ফেনী-১ শিরীন আখতার (জাসদ-ইনু), নোয়াখালী-৬ আয়েশা ফেরদাউস, কক্সবাজার-৪ শাহীন আক্তার চৌধুরী, যশোর-৬ ইসমাত আরা সাদেক, বাগেরহাট-৩ হাবিবুন নাহার, সুনামগঞ্জ-২ জয়া সেনগুপ্তা ও নেত্রকোনা-৪ রেবেকা মমিন।

এদের মধ্যে প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন সেলিমা আহমাদ ও শাহিন আক্তার। বাকিরা সবাই আগেও সাংসদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। শাহিন আক্তার আওয়ামী লীগের বিতর্কিত সাংসদ আবদুর রহমান বদির স্ত্রী। সেলিমা আহমাদ বাংলাদেশ উইমেন চেম্বারের বর্তমান সভাপতি। তাঁর স্বামী ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ।

এদিকে, ২০০৮ সালের নির্বাচনেও ১৩ জন নারীকে মনোনয়ন দিয়েছিল বিএনপি। তবে প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় এবার নির্বাচন করতে পারছেন না খালেদা জিয়া।

বিএনপির নারী প্রার্থীরা হলেন:

হাসিনা আহমেদ—কক্সবাজার-১; শামা ওবায়েদ—ফরিদপুর-২; রুমানা মোর্শেদ (কনকচাঁপা)—সিরাজগঞ্জ-১; শামীম আরা বেগম—ঢাকা-১১; রিটা রহমান—রংপুর-৩; তাহমিনা জামান—নেত্রকোনা-৪; জিবা আমিন খান—ঝালকাঠি-২; সাবিনা ইয়াসমিন—নাটোর-২; সানসিলা জেবরিন—শেরপুর-১; রুমানা মাহমুদ—সিরাজগঞ্জ–২; মাছুদা মোমিন—বগুড়া–৩; আফরোজা আব্বাস—ঢাকা–৯; তাহসিনা রুশদীর (লুনা)—সিলেট–২ এবং আফরোজা খান—মানিকগঞ্জ–৩।

তাহমিনা জামান ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরের স্ত্রী। হাসিনা আহমেদ স্থায়ী কমিটির কনিষ্ঠ সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদের স্ত্রী। শামীম আরা ঢাকা মহানগর বিএনপি নেতা এম এ কাইয়ুমের স্ত্রী, সাবিনা ইয়াসমিন বিএনপির নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদারের স্ত্রী। রোমানা মাহমুদ বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ইকবাল হাসান মাহমুদের স্ত্রী। আফরোজা আব্বাস বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী। তাহসিনা রুশদীর (লুনা) নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী। মাছুদা মোমিন দলের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল মোমিনের স্ত্রী।

আরও পড়ুন: উইন্ডিজকে ২৫৬ রানের টার্গেট দিল বাংলাদেশ

মানিকগঞ্জের আফরোজা খান সাবেক সাংসদ প্রয়াত হারুনার রশিদ খানের (মুন্নু) মেয়ে। রিটা রহমান প্রয়াত রাজনীতিক মসিউর রহমান যাদু মিয়ার মেয়ে এবং সানসিলা জেবরিন শেরপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হজরত আলীর মেয়ে। শামা ওবায়েদ বিএনপির প্রয়াত নেতা কে এম ওবায়েদুর রহমানের মেয়ে।

ইত্তেফাক/এমআই