লেবার পার্টিতে করবিন অধ্যায়ের সমাপ্তি

লেবার পার্টিতে করবিন অধ্যায়ের সমাপ্তি
লেবার পার্টির নেতৃত্ব থাকবেন না জেরেমি করবিন। ছবি: বিবিসি।

ব্রিটেনের লেবার পার্টির নেতৃত্ব থাকবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন দলটির বর্তমান প্রধান জেরেমি করবিন। চলতি ব্রিটেনের জাতীয় নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টির বড় জয় এবং লেবার পার্টির ব্যর্থতার কারণে ভবিষ্যৎ নির্বাচনে তিনি লড়বেন না বলেও জানিয়েছেন।

সম্পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েই বিজয়ী হয়েছেন ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। ৩৬১ আসনে বিজয়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের দল। অন্যদিকে লেবার ২০৩ আসনে জয় পেয়েছেন। ৫ আসনের ফলাফল এখনও ঘোষণা করা হয়নি। লেবার পার্টির জন্য সবচাইতে হতাশাজনক বিষয় হলো, গতবারের তুলনায় ৫৯ আসনে কম ভোট পাওয়া। ২০১৬ সালে ব্রেক্সিটকে সমর্থন জানিয়েছেন এমন এলাকাগুলো দ্য নর্থ, মিডল্যান্ডস ও ওয়েলসেও আসন হারিয়েছে দলটি।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ হাউস অব কমনসের সাড়ে ছয়শ আসনের মধ্যে ৬০০টির ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে টরি পার্টি নতুন করে ৪৩টি আসন পেয়েছে। যেখানে বিরোধী দল লেবার হারিয়েছে ৫৫টি আসন।

বরিস জনসন বলেছেন, ব্রেক্সিট সম্পন্ন করার জন্য তার সরকার নতুন করে শক্তিশালী ম্যান্ডেট পেয়েছে। পশ্চিম লন্ডনের অক্সব্রিজ আসনে জয়লাভের পর শুক্রবার জনসন বলেন, এখনকার পর্যায়ে যা দেখা যাচ্ছে, তাতে মনে হচ্ছে, কনজারভেটিভ সরকার কেবল ব্রেক্সিট কার্যকর করাই নয় বরং দেশকে একতাবদ্ধ করা এবং সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্যও নতুন করে শক্তিশালী বার্তা পেয়েছে।

এদিকে লেবার পার্টির ভরাডুবির জন্য ব্রেক্সিটকে দায়ী করেছেন করবিন। তিনি বলেন, ব্রেক্সিট এই দেশের সাধারণ রাজনীতিকে বিঘ্নিত করেছে। পুরো দেশ এখন দ্বিধাবিভক্ত।

নির্বাচনের এই রাতকে ‘প্রচণ্ড হতাশার’ বলে বর্ণনা করেছেন তিনি। বিবিসি।

ইত্তেফাক/আরএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত