করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথি
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথিক ওষুধ আর্সেনিকাম অ্যালবাম ৩০ কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে। ছবি-সংগৃহীত

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথি ও ইউনানি ওষুধ ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে ভারতের ‘আয়ুস মন্ত্রণালয়’। আয়ুর্বেদ, ইউনানি, হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা বিষয়ক মন্ত্রণালয়টি বুধবার এক বিবৃতিতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধের উপায় সংক্রান্ত নানা তথ্য প্রকাশ করেছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

বিবৃতিতে বলা হয়, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথিক ওষুধ আর্সেনিকাম অ্যালবাম ৩০ (Arsenicum album 30) কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে। একটানা তিনদিন খালি পেটে এই ওষুধ সেবন করতে হবে। সেবনের পর যদি ওই এলাকায় ভাইরাসটি মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে তাহলে ওষুধটি একমাস পর আবার আগের নিয়মে খেতে হবে। এই ওষুধটি ইনফ্লুয়েঞ্জা জাতীয় রোগের ক্ষেত্রেও কার্যকর বলে উল্লেখ করে আয়ুস মন্ত্রণালয়।

বায়ুর মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এই রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধে নাগরিকদেরকে নিয়মিত গরম পানি ও সাবান দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড হাত-মুখ ধোয়া, অকারণে নাকে মুখে হাত না দেওয়া, বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে।

তাছাড়া শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে স্বাস্থ্যকর খাবার, ব্যায়াম এবং কিছু আয়ুর্বেদ ওষুধ সেবনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:

উল্লেখ্য, চীনের উহান শহরে প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্তের পর থেকে এখন পর্যন্ত ১৬টি দেশে এই রোগে আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। দ্রুত ছড়িয়ে পড়া এই রোগে আক্রান্ত হয়ে চীনে এখন পর্যন্ত ১৩২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। রোগের ওষুধ আবিষ্কারে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ইত্তেফাক/এসইউ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত