করোনার চিকিৎসায় ঘরোয়া ওষুধে ভরসা করছেন আমাজনের অধিবাসীরা

করোনার চিকিৎসায় ঘরোয়া ওষুধে ভরসা করছেন আমাজনের অধিবাসীরা
সংগৃহীত ছবি।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস পৌঁছে গেছে আমাজনের গহীন বনে। আর এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে বাঁচতে নিজস্ব পদ্ধতিতে তৈরি ওষুধ ব্যবহার করছেন বলে জানিয়েছেন সেখানকার অধিবাসীরা।

অ্যামাজন বনের সাতেরে মাওয়ে উপজাতি সম্প্রদায়ের অধিবাসীরা জানান, গাছের ছাল ও মধু দিয়ে তৈরি বিশেষ এক ওষুধ দিয়ে করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা করাচ্ছেন তারা।

মানবাধিকার কর্মীদের অভিযোগ, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো আমাজনের অধিবাসীদের করোনা থেকে বাঁচাতে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন না। তাদের শঙ্কা, করোনা সংক্রমণ হলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকায় আমাজনে অনেক অধিবাসীরই মৃত্যু হতে পারে ।

করোনার ওষুধ তৈরির বিষয়ে সাতেরে মাওয়ে উপজাতি সম্প্রদায়ের নেতা আন্দ্রে সাতেরে মাওয়ে জানান, আমাদেরকে যে সকল শিক্ষা দেয়া হয়েছে সেখান থেকে আমরা ওষুধ তৈরি করছি এবং সেগুলো পরীক্ষা করছি। ভালদা ফেররেইরা ডি সুজা নামের আরেকজন বলেন, আমার শ্বাস কষ্ট ছিল । তবে ঘরোয়া ওষুধ নেয়ার পর আমি এখন অনেকটাই সুস্থ আছি।

ব্রাজিলের আমাজন রাজ্যের মেনাস শহরের পার্শ্ববর্তী তারুমায় বসবাস করা সাতেরে মাওয়ে উপজাতি সম্প্রদায়ের মধ্যে এখন পর্যন্ত ১১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

ইত্তেফাক/এআর

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

পরবর্তী ঘটনা
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত