বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭
২৯ °সে

ভারতে লকডাউন শিথিলের পর দ্বিগুণের বেশি সংক্রমণ

টেক্সাসে করোনা বিপজ্জনক মোড় নিয়েছে : গভর্নর *‘করোনার ভ্যাকসিন ৭৫ শতাংশের বেশি কার্যকর হবে না’
ভারতে লকডাউন শিথিলের পর দ্বিগুণের বেশি সংক্রমণ
[ছবি: সংগৃহীত]

ভারতে লকডাউন শিথিলের পর করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দ্বিগুণ হয়েছে। দেশটিতে প্রতিদিনই আক্রান্তে রেকর্ড গড়ছে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। দেশটির শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ফাউচি বলেছেন, করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন ৭৫ শতাংশের বেশি কার্যকর হবে না। খবর বিবিসির

ভারতে দ্বিগুণ সংক্রমণ :ভারতে আরো ১৯ হাজার ৪৫৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে মারা গেছে আরো ৩৮০ জন। মোট রোগী শনাক্ত ৫ লাখ ৪৮ হাজার ৩৪৮ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৩ লাখ ২১ হাজার ৭২৩ জন। মোট মারা গেছে ১৬ হাজার ৪৭৫ জন। ভারতে লকডাউন খোলার পর দ্রুতগতিতে বেড়েছে সংক্রমণ। লকডাউন-৪ পর্যন্ত ৪৭ শতাংশ ছিল সংক্রমণ বাড়ার হার। সেটা আনলক ১ এ এসে ৫৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ হয়েছে।

টেক্সাসে ভয়াবহ অবস্থা : টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ দ্রুতগতিতে বাড়ছে এবং বিপজ্জনক মোড় নিয়েছে বলে সতর্ক করেছেন গভর্নর গ্রেগ অ্যাবোট। গত মাত্র কয়েক সপ্তাহে রাজ্যটিতে দৈনিক করোনা ভাইরাস সংক্রমণ গড়ে প্রায় ২ হাজার থেকে বেড়ে ৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। সংক্রামক রোগের শীর্ষ মার্কিন বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউচি বলেছেন, সম্ভাব্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন আবিষ্কারের পরও যুক্তরাষ্ট্রে করোনার বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি গড়ে তোলা সম্ভব হবে না বলে মনে করেন তিনি। তার ধারণা, করোনার ভ্যাকসিন ৭০ শতাংশ থেকে ৭৫ শতাংশের বেশি কার্যকরী হবে না।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যা আশঙ্কা করছে

১ কোটি ছাড়িয়েছে শনাক্তের সংখ্যা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এবারে নতুন ভয়াবহ একটা পর্যায়ে ঢুকছে বিশ্ব। ইউরোপ ও এশিয়ার কিছু দেশে নিয়ন্ত্রণ এসেছে বটে কিন্তু বিশ্বের অনেক দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্ত বাড়ছে উচ্চগতিতে। ১০ লাখ রোগী শনাক্ত হতে সময় লেগেছে তিন মাস, কিন্তু শেষ ১০ লাখ রোগী মাত্র আট দিনে পাওয়া গেছে।

দক্ষিণ আমেরিকা কর্তৃপক্ষের একজন বলছেন, যে সংখ্যা আপনারা দেখতে পাচ্ছেন সেটা হলো শনাক্ত হওয়ার পরিমাণ, কিন্তু এটা একটা পানির ওপর ভেসে থাকা বরফের টুকরোর মতো আমরা কেউ জানি না আসল সংখ্যা কত বেশি হতে পারে। দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা ও মধ্য আমেরিকা এবং আফ্রিকার কিছু দেশে গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। যুক্তরাষ্ট্র শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যার দিক থেকে সবার থেকে এগিয়ে থেকেও নতুন রোগী শনাক্ত করছে বেশি। কিছু রাজ্যে লকডাউন শিথিল করার পর রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত