যুক্তরাজ্যে ফেরার অনুমতি পেলেন সেই শামীমা বেগম!

যুক্তরাজ্যে ফেরার অনুমতি পেলেন সেই শামীমা বেগম!
আইএসে যোগ দেওয়ার পরের ছবি। আইএসে যোগ দেওয়ার আগে শামীমা। ছবি: সংগৃহীত

২০১৫ সালে ইসলামিক স্টেট (আইএস) গোষ্ঠীতে যোগ দিতে সিরিয়া গিয়ে বিশ্বব্যাপী আলোচনার জন্ম দিয়েছিলেন ব্রিটিশ তরুণী শামীমা বেগম।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে দুই বান্ধবীর সঙ্গে যুক্তরাজ্য ছেড়ে ছিলেন শামীমা। ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে জয়লাভ করে যুক্তরাজ্য ফেরার অনুমতি পেয়েছেন। তবে তার আইনজীবী তাসনিম আখুঞ্জি জানিয়েছেন—তাকে আরো কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে।

ব্রিটেনের আপিল আদালত গতকাল বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছে—শামীমার নাগরিকত্ব বাতিলে ব্রিটিশ সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ের জন্য তিনি যুক্তরাজ্য ফিরতে পারবেন। তবে তার ফেরার বিষয়টি এখন নির্ভর করছে ব্রিটিশ হোম অফিস অর্থাত্ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওপর।

হোম অফিস যদি ব্রিটেনের আপিল আদালতের বৃহস্পতিবারের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে তাহলে মামলাটা চলে যাবে সুপ্রিম কোর্টের হাতে।

শামীমার বয়স এখন ২০ বছর। সিরিয়ায় গিয়ে সেখানে তিনি এক আইএস সদস্যকে বিয়ে করেন। সেখানে তার তিনটি সন্তান জন্ম নিলেও কেউ জীবিত নেই।

শামীমার আইনজীবী তাসনিম আখুঞ্জি জানিয়েছেন— ইরাকের সীমান্তের কাছে সিরিয়ার আলরোজ ক্যাম্পে শামীমা বেগম এখন বন্দিজীবন কাটাচ্ছেন। সেখানে আরো কিছু আইএস বন্দি রয়েছেন যারা জন্মগতভাবে বিদেশি। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো কিন্তু মানসিকভাবে তিনি কেমন আছেন তা জানেন না তাসনিম আখুঞ্জি।

তাসনিম জানান, বন্দি থাকা অবস্থায় তার সঙ্গে পরিবারের কোনো যোগাযোগ নেই। কয়েক মাস পর পর তাকে স্বল্প সময়ের জন্য টেলিফোনে কথা বলতে দেওয়া হয় তাও শুধু আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শের জন্য। —বিবিসি

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত