বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭
২৯ °সে

দ্রুত এগোচ্ছে জম্মু-কাশ্মীরের সেচ প্রকল্পের কাজ

দ্রুত এগোচ্ছে জম্মু-কাশ্মীরের সেচ প্রকল্পের কাজ
কাশ্মীর। ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি পূর্ণ হলো জম্মু ও কাশ্মীর বিভক্তির এক বছর। ৬৯ বছরের ইতিহাস পরিবর্তনের প্রথম বছর পার হতে না হতেই বেশ কিছু উন্নয়ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে ভারত সরকার। জম্মু ও কাশ্মীর বিভক্তির অংশ হিসেবে এই দুই অঞ্চলে শুরু হয়েছে ত্রাল সেচ প্রকল্প। আর সেই প্রকল্প এরই মধ্যে পেয়েছে এক নতুন গতি।

তিন ধাপ বিশিষ্ট এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে কিছুদিন আগেই। তৃতীয় ধাপ শুরুর আগে কাজ কিছুটা মন্থর গতিতে চললেও এখন দৃশ্য একেবারেই এর বিপরীত।

ভারত ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম এএনআই এর এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সম্প্রতি প্রকল্প শেষ করার সময় এই বছর শেষ পর্যন্ত বেধে দিয়েছে দেশটির সরকার। ফলে প্রকল্পটির কাজে যোগ হয়েছে এক নতুন গতি।

প্রায় ১৭১ কোটি রুপির বাজেটের এই তিন ধাপ বিশিষ্ট প্রকল্পের কাজ চলছে এক্সেলারেটেড ইরিগেশন বেনেফিট প্রোগ্রামের (এআইবিপি) অধীনে চলছে। পাশাপাশি দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কৃষি বিষয়ক পদক্ষেপ 'প্রধানমন্ত্রী কৃষি সঞ্চয়ী যজ্ঞে'র অধীনে প্রায় চার হাজার ৮১৮ হেক্টর জমি এই সেচ প্রকল্পের সুবিধা পেতে যাচ্ছে।

গত ৫ আগস্ট পূর্ণ হলো জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপের ১ বছর। ৬৯ বছরের ইতিহাস পরিবর্তন নিয়ে এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত এসেছে ভারতের নরেন্দ্র মোদির সরকারের কাছ থেকে। ফলে ‘বিশেষ মর্যাদা’ হারিয়ে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর। জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ এখন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল। এই উপত্যকায় নেই কোনো আলাদা সংবিধান ও পতাকা।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত