করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভারতের শীর্ষ মন্ত্রীরা

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভারতের শীর্ষ মন্ত্রীরা
করোনায় আক্রান্ত ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

ভারতের রাজনীতিতেও হানা দিয়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহসহ আরো দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদিকে ভারতের উত্তর প্রদেশ সরকারের মন্ত্রী কমল রানী বরুণ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

রবিবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ একটি টুইট বার্তায় নিজের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেন। ওইদিনই কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা জানান, তিনিও করোনায় আক্রান্ত এবং হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, তার শরীর ভালো আছে। চিকিৎসকদের পরামর্শেই তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর আগে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানও করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়া তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল বানোয়ারিলাল পুরোহিতও করোনায় আক্রান্ত হয়ে চেন্নাইয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে তার উপসর্গ নেই। তিনি ভালো আছেন বলে হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে। কিন্তু করোনায় আক্রান্ত উত্তর প্রদেশের মন্ত্রী ৬২ বছর বয়সী কমল রানী বরুণ লখনউয়ের হাসপাতালে মারা গেছেন।

ভারতে এতদিন রাজনীতিকরা খুব বেশি করোনায় আক্রান্ত হননি। কিন্তু হঠাৎ, যেভাবে তারা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, তাতে রীতিমতো আলোড়ন শুরু হয়েছে। এখন যেহেতু অল্প কিছু এলাকা ছাড়া লকডাউন কার্যত আর নেই, তাই আক্রান্তের সংখ্যাও হু হু করে বাড়ছে।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, ভারতে এ পর্যন্ত ১৮ লাখ ৭ হাজার ২২২ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৩৮ হাজার ১৭৬ জন।

ইত্তেফাক/এআর

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

পরবর্তী
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত