ইরানের সঙ্গে অস্ত্র বাণিজ্য করলেই শাস্তি দেবেন ট্রাম্প!

ইরানের সঙ্গে অস্ত্র বাণিজ্য করলেই শাস্তি দেবেন ট্রাম্প!
প্রতীকী ছবি।

আগামী মাসে শেষ হচ্ছে ইরানের ওপর জাতিসংঘের আরোপিত অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। এই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলেও ইরানের সঙ্গে যারা অস্ত্র বাণিজ্য করবে তাদেরকে শাস্তি দেওয়ার জন্য একটি নির্বাহী আদেশ জারির পরিকল্পনা করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই নির্বাহী আদেশের সঙ্গে সম্পর্কিত চারটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংশ্লিষ্ট সূত্র রয়টার্সকে বলেন, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই ট্রাম্প এই নির্বাহী আদেশ জারি করবেন । যে সব দেশ অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে ইরানের সঙ্গে অস্ত্র বাণিজ্য করবে তাদেরকে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে প্রবেশ না করতে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন ট্রাম্প।

এ নিয়ে হোয়াইট হাউজের কাছে রয়টার্স জানতে চাইলেও তাদের পক্ষ থেকে তাৎক্ষনিক কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

২০১৫ সালে জাতিসংঘের মাধ্যমে অনুমোদিত ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতার আওতায় আগামী অক্টোবর মাসের মধ্যে তেহরানের ওপর থেকে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র দুই বছর আগেই পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলেও দেশটি ইরানবিরোধী নিষেধাজ্ঞা নবায়নের জন্য তৎপরতা চালিয়ে গেছে। তবে তাতে সফল হয়নি মার্কিন সরকার। বিশ্লেষকরা বলছেন, আগামী মাসে ইরানের ওপর থেকে জাতিসংঘের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হলে যাতে কোনো দেশ তেহরানের সঙ্গে অস্ত্র বাণিজ্য না করে সে জন্যই এই নির্বাহী আদেশ জারি করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প।

ইত্তেফাক/এআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত