উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীনা 'নৃশংসতা', উদ্বিগ্ন ইসরায়েলি তরুণরা

উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীনা 'নৃশংসতা', উদ্বিগ্ন ইসরায়েলি তরুণরা
শিনজিয়াংয়ের বিভিন্ন বন্দিশিবিরে ১০ লাখের বেশি মুসলিমকে বন্দি করে রেখেছে বলে জাতিসংঘ জানিয়েছে। ছবি সংগৃহীত

চীনের শিনজিয়াং প্রদেশে লাখ লাখ উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীন যে বর্বরতা চালাচ্ছে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ইসরায়েলি তরুণরা। রেডিও ফ্রি এশিয়াকে ইসরায়েলি এক তরুণ এমনটি জানিয়েছেন।

অ্যান ডেসটিনি ওয়ান নামের ইসরায়েলি ঐ তরুণ বলেছেন, উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীন যে নৃশংসতা চালাচ্ছে তা ‘প্রায় গণহত্যার শামিল’। এনিয়ে ইসরায়েলি তরুণদের মধ্যে উদ্বেগ কাজ করছে।

অ্যান রেডিও ফ্রি এশিয়ার উইঘুর সার্ভিসের সঙ্গে আলাপচারিতায় বলেন, চীনে উইঘুরদের ওপর যে নৃশংস নির্যাতন হচ্ছে ইসরায়েলে সে বিষয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।

জানা যায়, অ্যান ডেসটিনি ইসরায়েলি বেশকিছু তরুণদের মধ্যে একজন যিনি উইঘুরদের ওপর চীনের নৃশংসতার বিরুদ্ধে টুইটারে সক্রিয়ভাবে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

উইঘুরদের ওপর চালানো চীনের বর্বরতাকে হলোকাস্টের সঙ্গে তুলনা করা হবে কি-না এবিষয়ে ডেসটিনি বলেন, হলোকাস্ট শব্দটির ব্যবহার নিয়ে ইহুদিরা এক ধরনের বিভক্ত বলা যায়। আমি মনে করি, উইঘুরদের ওপর নৃশংসতাকে হলোকাস্টের সঙ্গে অবশ্যই তুলনা করা প্রয়োজন। কারণ উইঘুরদের ওপর যে নৃশংস নির্যাতন চলছে তা প্রায় গণহত্যার শামিল।

তিনি রেডিও ফ্রি এশিয়াকে আরো জানান, তার লক্ষ্য হলো চীনে উইঘুরদের ওপর যে নির্যাতন করা হচ্ছে সে বিষয়ে ইসরায়েলিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা। তার বিশ্বাস শিনজিয়াংয়ে নির্যাতন বন্ধে ইসরায়েলিরা চীনের ওপর যথেষ্ট চাপ প্রয়োগ করতে সক্ষম হবে। ইয়াহু নিউজ

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত