মক্কার কাবার আদলে তৈরি হতে পারে অযোধ্যার মসজিদ

মক্কার কাবার আদলে তৈরি হতে পারে অযোধ্যার মসজিদ
বাবরি মসজিদ ও পবিত্র কাবা শরিফ। ছবি: সংগৃহীত

বাবরি মসজিদের পরিবর্তে ভারতের অযোধ্যায় তৈরি হতে যাচ্ছে নতুন আরেকটি মসজিদ। তবে এই মসজিদটি প্রচলিত আঙ্গিকে নয়, ভিন্ন আদলে নির্মাণ করা হবে।

মসজিদ তৈরির দায়িত্বে থাকা ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন ট্রাস্টের সম্পাদক ও মুখপাত্র আতাহার হুসেন এমনটিই জানিয়েছেন।

রবিবার ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, মসজিদটি প্রথাগত আদলের বাইরে নির্মাণ হবে। সেক্ষেত্রে সৌদি আরবের মক্কা নগরীতে অবস্থিত পবিত্র কাবা শরিফের আদলে এটি নির্মাণ হতে পারে।

আতাহার হুসেন বলেন, ‘১৫ হাজার বর্গফুট জায়গা নিয়ে গড়ে উঠবে এই মসজিদ। বাবরি মসজিদের আয়তনও এমন ছিল। এটি কাবার মতো চৌকো গড়নের হতে পারে। তবে এখনও পুরোটাই ট্রাস্টের আলোচনার স্তরে আছে। চূড়ান্ত কিছু হয়নি।’

কাবা শরিফের যেমন কোনও গোল মাথা বা গম্বুজ নেই, তেমনই হতে পারে অযোধ্যার মসজিদও। এ বিষয়ে স্থপতিবিদকেই সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ট্রাস্টের এই সম্পাদক।

আতাহার হুসেন বলেন, ‘মসজিদটি বাবরি নামে হবে না। অন্য কোনও রাজা বা মহারাজের নামেও হবে না। আমি ব্যক্তিগতভাবে চাই, একে ধন্নিপুরের মসজিদ নাম দেওয়া হোক। ’

মসজিদ কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরে জাদুঘর, হাসপাতাল ও গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন করা হবে বলে জানান আতহার হুসেইন। এ জন্য অনুদান সংগ্রহে ফাউন্ডেশনের নিজস্ব ওয়েবসাইট বানানোর কাজ চলছে।

২০১৯ সালের ৯ নভেম্বর রাম জন্মভূমি মামলার রায় ঘোষণা করে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

রায়ে বলা হয়, অযোধ্যার বিতর্কিত ওই ২ দশমিক ৭৭ একর জমিতে গড়ে উঠবে রাম মন্দির। আর অন্য কোনও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মসজিদের জন্য বরাদ্দ করা হবে ৫ একর জমি।

মন্দির ও মসজিদ নির্মাণে হিন্দু এবং মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের আলাদা দুটি সংস্থাকেও দায়িত্ব দেন আদালত।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরই মসজিদ গড়ে তোলার জন্য ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট গঠন করে উত্তরপ্রদেশ সুন্নি সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ড।

এরপর ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদের স্থানে আগস্ট মাসে রাম মন্দিরের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এখান থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত অযোধ্যার ধন্নিপুরে মসজিদ তৈরির প্রস্তুতি নেওয়া হয়। বর্তমানে সেখানেই ১৫ হাজার বর্গফুটের একটি মসজিদ তৈরির প্রস্তুতি চলছে। সূত্র: এনডিটিভি, টাইমস অফ ইন্ডিয়া

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত