জনগণকে ঘরে বসে কাজ করার আহ্বান

ব্রিটেনে আরো ছয় মাসের করোনা বিধিনিষেধের পরিকল্পনা বরিসের

ব্রিটেনে আরো ছয় মাসের করোনা বিধিনিষেধের পরিকল্পনা বরিসের
বরিস জনসন। ফাইল ছবি।

যুক্তরাজ্যে দ্রুতগতিতে বাড়ছে কোভিড-১৯ সংক্রমণ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জনগণকে সম্ভব হলে বাড়িতে থেকে কাজ করতে বলেছেন। দেশজুড়ে নতুন করে আরো ছয় মাসের জন্য কঠোর লকডাউনসহ কিছু বিধিনিষেধও আরোপের পরিকল্পনা করা হয়েছে। বরিস জনসন বলেছেন, যারা শপিংয়ে যাবেন কিংবা অফিসে যাবেন সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। না মানলে কঠোর আইনের মুখোমুখি হতে হবে। ইউরোপ জুড়ে আবারও কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে, যাকে মহামারির ‘দ্বিতীয় ঢেউ’ বলা হচ্ছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধে গত মার্চে যুক্তরাজ্যে প্রথম দফায় লকডাউন আরোপ করা হয়েছিল। ধীরে ধীরে সেখানে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা কমে যাচ্ছিল। কিন্তু সম্প্রতি আবার কোভিড-১৯ ভাইরাস শনাক্তে ও মৃত্যুতে উচ্চ হার লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সেখানে আবারও যে গতিতে সংক্রমণ বাড়ছে তা ঠেকাতে এরই মধ্যে কয়েকটি অঞ্চলে স্থানীয়ভাবে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

জনসন নিজেও ইংল্যান্ডে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন। তবে তিনি বলেছেন, দ্বিতীয় দফায় যাতে পূর্ণ লকডাউন আরোপ করতে না হয় সে চেষ্টা করবেন। পূর্ণ লকডাউনে অর্থনীতির চাকা পুরোপুরি থেমে যায়। যা অর্থনীতিকে ভয়াবহভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে আবার যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে এখনই যথাযথ এবং কার্যকর নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা না নেওয়া গেলে আগামী মাসের মধ্যভাগে দৈনিক শনাক্ত ৫০ হাজারে ওঠে যাবে বলে আশঙ্কা চিকিত্সা বিজ্ঞানীদের।

আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ইংল্যান্ড জুড়ে সব বার, রেস্তোরাঁ, পাব এবং অন্যান্য অতিথিশালা রাত ১০টার মধ্যে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ জারি হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত