বৈশ্বিক মহামারি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়

বৈশ্বিক মহামারি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়
প্রতীকী ছবি।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মহামারি ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের যুক্তরাষ্ট্র, চীন এবং রাশিয়ার মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়েছে। জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্থোনিও গুতেরেস করোনা মোকাবেলায় নিরাপত্তা পরিষদের দেশগুলোর ব্যর্থতার কথা তুলে ধরার পর এই উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়।

গুতেরেস বলেন, একটি বৈশ্বিক প্রস্তুতি, সহযোগিতা, একতা এবং সংহতির অভাবে করোনা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে এবং বিশ্বজুড়ে প্রায় দশ লাখের কাছাকাছি মৃত্যুর সংখ্যা চলে গিয়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের উদ্দেশ্যে গুতেরেস বলেন, মহামারিটি আন্তর্জাতিক সহযোগিতার একটি সুস্পষ্ট পরীক্ষা । আমরা এই পরীক্ষা মূলত ব্যর্থ হয়েছি। যদি জলবায়ু সংকটের ক্ষেত্রেও এমনটি হয় তাহলে আমার শঙ্কা এর চেয়েও খারাপ কিছু হবে।

এদিকে মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিশ্বে করোনা ‘প্লেগ’ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য চীনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন। করোনা ভাইরাসের সর্বোচ্চ সংক্রমণ ও মৃত্যুর দিক দিয়ে বিশ্ব তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ করোনা নিয়ে চীনের স্বচ্ছতার অভাবেই ভাইরাসটির ভয়াবহভাবে ছড়িয়েছে। যদিও চীন যুক্তরাষ্ট্রের এই অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে।

নিরাপত্তা পরিষদের ভার্চুয়াল বৈঠকে মার্কিন দূত কেলি ক্রাফটের এই অভিযোগ পুনরায় তুলে ধরলে তা খারিজ করে চীনা দূত ঝ্যাং জুন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান। ইংরেজিতে দেওয়া ভাষণে চীনা দূত বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত মেডিক্যাল টেকনোলজি ও ব্যবস্থা থাকার পরও কেন যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু ঘটছে। যদি কাউকে দায়ী করতে হয় তাহলে তা কয়েকজন মার্কিন রাজনীতিককে নিজেদের দায়ী করতে হবে।

রাশিয়ার দূত চীনের এই অবস্থানকে সমর্থন জানালে ঝ্যাং জুন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বিভিন্ন দেশের দূতদের সমালোচনা করেছেন মার্কিন দূত ক্রাফট। তিনি বলেন, আপনাদের সবার লজ্জা হওয়া উচিত। আজকের বৈঠকের বিষয়বস্তু নিয়ে আমি হতবাক ও মেনে নিতে পারছি না।

কূটনীতিকরা জানান, মার্কিন দূতের কথা বলার ভঙ্গিতে তারা ধাঁধায় পড়ে যান। চীনা দূত কথা বলার আগেই ক্রাফট বৈঠক ছেড়ে চলে যান।

ইত্তেফাক/এআর

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

পরবর্তী
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত