আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার তীব্র লড়াই, ৩১ সেনা নিহত

আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার তীব্র লড়াই, ৩১ সেনা নিহত
আজারবাইজানের একটি ট্যাঙ্কে আগুন জ্বলছে। ছবি: বিবিসি

টানা দ্বিতীয় দিনের মতো আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনীর মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। এতে উভয় পক্ষেই বহু সেনা হতাহত হয়েছে। দুই দেশের সামরিক বাহিনী ভারী অস্ত্র ব্যবহার করেছে।

দাবি করা হচ্ছে, এই লড়াইয়ে উভয়ের ৩১ সেনা মারা গিয়েছে।

আজারবাইজান জানিয়েছে, আর্মেনিয়ার ভারী গোলাবর্ষণে ২৬ জন বেসামরিক লোক আহত হয়েছে। এর আগে কমপক্ষে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

বিবাদপূর্ণ নাগোরনা-কারাবাখ অঞ্চল ঘিরে প্রতিবেশী এই দুই দেশের মধ্যে নতুন করে লড়াই বেধেছে।

এই অঞ্চলটি আন্তর্জাতিকভাবে আজারবাইজানের অংশ হিসেবে স্বীকৃত। তবে জাতিগতভাবে এটি আর্মেনিয়ানদের দ্বারা পরিচালিত।

আর্মেনিয়া এবং আজারবাইজান উভয় ইতোমধ্যে কিছু কিছু অঞ্চলে সামরিক আইন ঘোষণা করেছে। আর্মেনিয়াকে চূড়ান্ত হুমকি দিয়েছে আজারবাইজান।

আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দু'পক্ষই ভারী আর্টিলারি মোতায়েন করেছে। আজারবাইজানের শহর টেরটায় আর্মেনিয়ান বাহিনীর গুলিতে আগুন লেগেছে।

এর আগে ২০১৬ সালে এই দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সে সময় ২০০ জন মারা গিয়েছিল। দীর্ঘ সময় পর আবারো সংঘর্ষ শুরু হয়।

এর ফলে কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ ককেশাস অঞ্চলের স্থিতিশীলতা নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। বিশ্ব বাজারে তেল এবং গ্যাসের সরবরাহের পাইপলাইনের অন্যতম করিডর হিসেবে পরিচিত এই অঞ্চল। আন্তর্জাতিক নেতারা কূটনীতিকভাবে এর সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন।

তুরস্ক ইতোমধ্যে আজারবাইজানের পক্ষে সমর্থন জানিয়েছে। আর রাশিয়া, যাদের আর্মেনিয়ায় সামরিক ঘাঁটি রয়েছে তারা অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে। সূত্র: বিবিসি

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত