করোনার অ্যান্টিবডি চিকিৎসার ট্রায়াল স্থগিত করলো এলি-লিলি

করোনার অ্যান্টিবডি চিকিৎসার ট্রায়াল স্থগিত করলো এলি-লিলি
প্রতীকী ছবি।

নিরাপত্তার শঙ্কায় করোনার অ্যান্টিবডি চিকিৎসার তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল স্থগিত করেছে মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি এলি-লিলি। মঙ্গলবার কোম্পানিটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়। তবে নিরাপত্তা শঙ্কা কী নিয়ে সেটি বিস্তারিতভাবে এলি-লিলির পক্ষ থেকে বলা হয়নি।

একটি বিবৃতিতে এলি-লিলি কোম্পানির একজন মুখপাত্র বলেন, এই গবেষণায় অংশ নেওয়া রোগীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে স্বাধীন তথ্য ও সুরক্ষা নিরীক্ষণ বোর্ড যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটিকে সমর্থন করছি।

এলি-লিলি মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি মিশ্রণের মাধ্যমে তাদের ট্রায়াল চালাচ্ছিল। গত আগস্টে যুক্তরাষ্ট্র, ডেনমার্ক এবং সিঙ্গাপুরের ৫০টি স্থানে হাসপাতালে ভর্তি করোনা আক্রান্ত রোগীদের ওপর অ্যান্টিবডি চিকিৎসার তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করে এলি-লিলি। ট্রায়ালে ১০ হাজার করোনা রোগীকে অ্যান্টিবডি চিকিৎসা দেওয়ার কথা ছিল। এই ট্রায়ালে পৃষ্ঠপোষক ছিল যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব হেলথ।

জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির দেহের রক্তরসে এক সময়ে প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। আর মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি হচ্ছে, তারই রাসায়নিক সংস্করণ। মানবশরীরের প্রধান প্রতিরোধ ব্যবস্থার জৈব-রাসায়নিক গুণাগুণ গবেষণাগারে সম্পূর্ণ রাসায়নিক মাধ্যমে রুপান্তর করা হয়।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে রিজেনেরন ফার্মার তৈরি একটি পরীক্ষামূলক মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি মিশ্রণ জরুরি ভিত্তিতে দেওয়া হয়। এরপরই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে হোয়াইট হাউজে ফিরে এসেছেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি।

গত সপ্তাহে জরুরিভিত্তিতে অ্যান্টিবডি চিকিৎসার প্রয়োগের অনুমোদনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছিলো রিজেনেরন ও এলি-লিলি।

ইত্তেফাক/এআর

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

পরবর্তী
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত