মালয়েশিয়ায় জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন রাজা
মালয়েশিয়ায় জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিন।

যে কোনো মুহূর্তে মালয়েশিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি হতে পারে। রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলার জেরে দেশটির প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিন এ রকম একটি প্রস্তাব নিয়ে দেশটির রাজা আল-সুলতান আবদুল্লাহর সঙ্গে দেখা করে পার্লামেন্ট স্থগিত করতে আহ্বান জানিয়েছেন। রাজা বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কাউন্সিলের সঙ্গে আলোচনা করবেন। আবদুল্লাহর প্রাসাদ থেকে এক বিবৃতিতে শিগিগর জরুরি অবস্থা জারি প্রসঙ্গে ‘দ্য কাউন্সিল অব রুলার্স’-এর বৈঠক হবে বলে জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন শুক্রবার রাজার সঙ্গে দেখা করেন এবং দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব দেন। তবে ওই প্রস্তাবের কড়া সমলোচনা করে বিরোধী দলের নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম বলেছেন, ক্ষমতা আঁকড়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রী এই কৌশল খাটাচ্ছেন।

চলতি বছরের মার্চে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে মাহাথির মোহাম্মদের আকস্মিক পদত্যাগের পর রাজার পছন্দে নতুন প্রধানমন্ত্রী হন মুহিদ্দিন। তিনি দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। মাহাথিরের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। তবে নতুন প্রধানমন্ত্রী পেলেও মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলা অব্যাহত আছে। বিরোধী দলের নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম পার্লামেন্টের ভোটের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে মুহিদ্দিনকে উত্খাতের হুমকি দিয়ে রেখেছেন। এ জন্য তার হাতে প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে বলেও দাবি করেছেন আনোয়ার। তাই ক্ষমতা বাঁচাতে মুহিদ্দিন রাজা সুলতানের কাছে জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব করেছেন বলে জানা গেছে।

মালয়েশিয়ায় নয়টি ঐতিহ্যবাহী রাজপরিবার আছে। প্রত্যেক পরিবারের প্রধানদের নিয়ে গঠিত ‘দ্য কাউন্সিল অব রুলার্স’। এই কাউন্সিল দেশটির যে কোনো আইন বাতিল করার এবং যে কোনো জাতীয় নীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলার ক্ষমতা রাখে। রবিবার এই কাউন্সিলের বৈঠক হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন:অষ্টমীতে ছেলের নাম জানালেন কোয়েল মল্লিক

আগামী ৬ নভেম্বর দেশটির পার্লামেন্টে ২০২১ সালের বাজেট প্রস্তাব পেশ করার কথা। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে মুহিদ্দিন সরকারের বাজেট প্রস্তাব পাশ হওয়া নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। —রয়টার্স

ইত্তেফাক/আরআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত