পাকিস্তানে পুলিশ-সামরিক বাহিনীর দ্বন্দ্ব চরমে

পাকিস্তানে পুলিশ-সামরিক বাহিনীর দ্বন্দ্ব চরমে
সিন্ধু পুলিশ প্রধান মুশতাক মহর।

পাকিস্তানে সিন্ধু প্রদেশে সেনাবাহিনীর সঙ্গে পুলিশের দ্বন্দ্ব চরম রূপ নিয়েছে। সরকারবিরোধী আন্দোলনের মধ্যে এ ঘটনা ইমরান প্রশাসনকে আরও চাপের মুখে ফেলেছে।

গত সোমবার গ্রেফতার হন নওয়াজ শরিফের জামাতা ও পাকিস্তান মুসলিম লীগের প্রধান মোহাম্মদ সফদার। এ সময় অভিযোগ উঠে, তাকে গ্রেফতার করতে চায়নি সিন্ধু পুলিশ।

আধা সামরিক বাহিনী পাক রেঞ্জার্সের সদস্যরা সিন্ধু পুলিশ প্রধান মুশতাক মহরকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে তাকে গ্রেফতারের ব্যাপারে রাজি করায়।

এ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে চলে আসে ইসলামাবাদ-করাচি। এদিকে পুলিশ প্রধানকে ‘অপহরণের’ বিষয়ে দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া।

সংবাদমাধ্যম দ্য প্রিন্টকে আয়শা সিদ্দিকা নামের পাকিস্তানের একজন বিশেষজ্ঞ বলেন, সিন্ধু পুলিশ সেনাদের অতিরিক্ত হস্তক্ষেপে ক্লান্ত হয়ে পড়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগ দাবি এবং পাকিস্তানের রাজনীতিকে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলে এর প্রতিবাদে দেশজুড়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে পিএমএল-এন এবং অন্য ৮টি বিরোধীদলীয় জোট। যেসব নেতা প্রতিবাদ বিক্ষোভ করছিলেন তার মধ্যে মুহাম্মদ সফদার অন্যতম।

ইত্তেফাক/এআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত