করোনা মহামারীর পর জম্মু কাশ্মীরে প্রথম হস্তশিল্প প্রদর্শনী

করোনা মহামারীর পর জম্মু কাশ্মীরে প্রথম হস্তশিল্প প্রদর্শনী
তাঁত এবং হস্তশিল্প প্রদর্শনীতে আসছেন স্থানীয়রা। ছবি : সংগৃহীত

করোনা মহামারীতে সংকটগ্রস্ত সবাই। তার মধ্যে বেশি খারাপ অবস্থায় দিন পার করছিল জম্মু কাশ্মীরের শ্রীনগরের তাঁতি এবং হস্তশিল্পীরা। হস্তশিল্প কারিগর এবং তাঁতিদের সরাসরি বিপণনের সহায়তা প্রদানের জন্য কাশ্মীরের নুমাইশ গাহ হাটে প্রথম তাঁত এবং হস্তশিল্প প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন।

করোনাকালীন সতর্কতা, সচেতনতা এবং নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই এ প্রদর্শনীর আয়োজন করে জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন।

তাঁতি ও হস্তশিল্প কারিগরদের সহায়তার করার পাশাপাশি মেলায় আসা স্থানীয়দের এবং সমাজের সকল শ্রেণির মানুষের মেলা থেকে পণ্য ক্রয়ের আহ্বান জানায় জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়- মেলায় পণ্য ক্রয় করে আমাদের তাঁতি ও হস্তশিল্প কারিগরদের পাশে দাঁড়ান। তাদের আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসতে সাহায্য করুন।

উমর আহমদ নামে স্থানীয় এক কারিগর জম্মু কাশ্মীর প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এএনআই কে বলেন, ‘পুরো বিশ্ব এখন আশার উপর বেঁচে আছে। আমরা আশাবাদী এই প্রদর্শনী এবং মেলার মাধ্যমে আমাদের ব্যবসা পুনরায় আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। লকডাউনের কারণে আমাদের ব্যবসার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন দুঃসময়ে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে, এজন্য স্থানীয় কারিগরদের পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানাই।’

মেলার প্রদর্শনীতে থাকছে স্থানীয়দের হাতে তৈরি পশমিনা, কানি শালস, সিল্ক কার্পেট, পেপিয়ার ম্যাচে, কপারওয়্যার, সজনি সূচিকর্ম, চেইন স্টিচ, ক্রিল, আরি, স্ট্যাপল, জেলির সঙ্গে নামকরা, ফেলানকে হ্যান্ডলুম এবং হস্তশিল্প।

আরো পড়ুন : প্রতি মাসের প্রথম রবিবার জাতীয় চিড়িয়াখানায় প্রবেশ ফ্রি

মাসরাত জান নামে এক ক্রেতা আনন্দ প্রকাশ করে এএনআই কে বলেন, ‘লকডাউন শেষে এই মেলা আয়োজনের জন্য আমরা হস্তশিল্প বিভাগ ও জম্মু কাশ্মীর প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই। আমরা প্রদর্শনী থেকে প্রচুর পণ্য কিনেছি। আমি সত্যই এই পদক্ষেপের প্রশংসা করি। এই মেলার আয়োজন করার কারণে ক্রেতাদের পাশাপাশি বিক্রেতাদের আগের অবস্থায় ফিরে আসতে সাহায্য করবে।’

শ্রীনগর জেলা কালেক্টর (ডিসি) শহীদ ইকবাল চৌধুরী এএনআইকে বলেন, ‘কাশ্মীরের স্থানীয় কারিগরদের প্রচারের জন্য এটি খুব উপকারী একটি প্ল্যাটফর্ম। এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে সকল শ্রেণির মানুষ উপকৃত হবেন। আমরা 'ভোকাল ফর লোকাল'-এই প্রতিপাদ্য কে কেন্দ্র করেই এই মেলার আয়োজন করেছি। মেলা ছাড়াও এখানে কারিগররা ই-কমার্স প্লাটফর্মে প্রদর্শনীর মাধ্যমে অনলাইনে তাদের পণ্যগুলি বিক্রি করছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত