ডোকলামে ফের চীনের তৎপরতা!

ডোকলামে ফের চীনের তৎপরতা!
স্যাটেলাইটে ধরা পড়া ডোকলাম মালভূমির কাছে চিনের তৈরি করা নতুন গ্রাম ও রাস্তার ছবি। ছবি: সংগৃহীত।

৩ বছর আগে ‘ঘুমিয়ে পড়া’ ডোকলাম ইস্যু এখন ভাবিয়ে তুলেছে ভারতকে।দুই দেশের মধ্যকার কয়েক দশকের সবচেয়ে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরির মধ্যেই উপগ্রহ চিত্রে লাদাখের ডোকলামে চীনা তৎপরতার দৃশ্য ধরা পড়েছে।

এর জন্য একদিকে যেমন পাকিস্তানকে মদত দিচ্ছে অন্যদিকে নেপাল ও ভুটানের জমি দখল করে ভারতীয় সীমান্ত এলাকায় পরিকাঠামো তৈরি করছে। এমনকি সেনাও মোতায়েন করছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর পাওয়া গেছে।

কয়েকদিন আগে চীনের এক সাংবাদিকের টুইটের মাধ্যমে জানা যায় ডোকলাম মালভূমিতে ভুটান সীমান্তের ২ কিলোমিটার ভিতরে একটি গ্রাম তৈরি করেছে বেইজিং। এবার প্রকাশ্যে এলো একটি উপগ্রহ চিত্র যাতে দেখা যাচ্ছে, ওই গ্রামের পাশ দিয়েই একটি রাস্তা তৈরি করেছে তারা।

এনডিটিভি ও আনন্দবাজার বিশেষজ্ঞদের বরাতে জানাযায়,ওই রাস্তার অভিমুখ ভারতীয় সীমান্তের দিকেই। ফলে তিন বছর আগে ‘ঘুমিয়ে পড়া’ ডোকলাম ইস্যু ফের ভাবিয়ে তুলেছে নয়াদিল্লিকে।

ওই উপগ্রহ চিত্রটি অনুযায়ী, ভুটানের দু'কিলোমিটার ভিতরে প্যাঙ্গদা নামক যে গ্রামটি চিন তৈরি করেছে সেখান থেকে ৯ কিলোমিটার পর্যন্ত একটি রাস্তা ইতিমধ্যেই বানিয়ে ফেলেছে তারা। এর ফলে খুব সহজেই ডোকলাম মালভূমির জোমপেলরি এলাকায় পৌঁছে যেতে পারবে চীনের সেনারা। তোর্সা নদীর ধার দিয়ে তৈরি রাস্তা দিয়ে পৌঁছে যাওয়া যাবে একদম ভারতীয় সীমান্তে থাকা সেনা পোস্টের কাছে।

আরো পড়ুন: বাইডেনকে মার্কিন রাষ্ট্রপতি হিসেবে মানতে নারাজ পুতিন

ভুটানের মাটিতে চীনের এই তৎপরতা দেখে আশঙ্কিত বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলছেন, ২০১৭ সালে ডোকলামের যে জায়গায় রাস্তা তৈরি নিয়ে ভারতের সঙ্গে চীনের ঝামেলা হয়েছিল। এই রাস্তাটি সেখানে অন্যপথে পৌঁছনোর জন্যই বানাচ্ছে শি জিনপিংয়ের প্রশাসন। তিন বছর আগে চীন সেনাদের যে শৈলশিরা দখল করতে দেননি ভারতীয় সেনা জওয়ানরা সেখানেই ফের ঘাঁটি তৈরির চেষ্টা করছে তারা।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত