২৮ বছরের পুরনো ভ্রূণ থেকে জন্ম শিশুর!

২৮ বছরের পুরনো ভ্রূণ থেকে জন্ম শিশুর!
২৮ বছরের পুরনো ভ্রূণ থেকে জন্ম শিশুর। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে যে শিশুটিকে দেখছেন তার নাম মলি গিভসন। তার বয়স মাত্র এক মাস। তবে তর্কের খাতিরে অনেকে অবশ্য তার বয়স ২৮ বছরও বলতে পারেন। এতে ভুল হবে না। কারণ, যে ভ্রূণ থেকে তার জন্ম হয়েছে সেটি সংরক্ষণ করা হয়েছিল ঠিক ২৮ বছর আগে।

জানা যায়, সেই ১৯৯২ সালের অক্টোবর মাস থেকে কন্যাশিশুটিকে ভ্রূণ অবস্থাতেই জমাট রাখা হয়েছিল। দীর্ঘ ২৮ বছর পর অবশেষে চলতি ফেব্রুয়ারিতে ২৯ বছর বয়সী মার্কিন তরুণী টিনা গিবসনের গর্ভে ভ্রুণটি প্রতিস্থাপন করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যে গত ২৬ অক্টোবর জন্ম নিয়েই শিশুটি ইতিহাস তৈরি করেছে। তিন বছর আগে তার সহোদরা এমা গিবসনের জন্ম হয়েছিল ২৪ বছরের পুরনো ভ্রূণ থেকে। এবার সেই রেকর্ড ভাঙলো মলি।

তবে এত পুরোনো ভ্রূণ এই প্রথম সফলভাবে মাতৃদেহে বেড়ে উঠে জন্মলাভ করার মতো বিজ্ঞানের বিস্ময় নিয়ে বিশেষ নজর নেই মলির মা টিনা গিবসন ও বাবা বেন গিবসনের। নতুন অতিথিকে পেয়েই তারা খুব খুশি।

যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যের নক্সভিল শহরের ন্যাশনাল এমব্রয় ডোনেশন সেন্টারে ১৯৯২ সালের অক্টোবরে মলি গিবসনের ভ্রূণ সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিল। গত ফেব্রুয়ারিতে ভ্রূণটি টিনার গর্ভে প্রতিস্থাপন করা হয়।

টিনা তিন বছর আগে ঠিক একই পদ্ধতিতে মা হয়েছিলেন। ২০১৭ সালে নভেম্বর মাসে তার গর্ভে জন্ম নেয় এমা গিবসন। ওই ভ্রূণ ২৪ বছর সংরক্ষণ করে রাখার পর প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল টিনা গিবসনের গর্ভে।

ইত্তেফাক/টিআর

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত