ঘুষের অর্থে পুতিনের বিলাসবহুল প্রাসাদ বানানোর অভিযোগ

ঘুষের অর্থে পুতিনের বিলাসবহুল প্রাসাদ বানানোর অভিযোগ
রাশিয়ায় পুতিনের বিলাসবহুল প্রাসাদ।

রাশিয়ার বিরোধী দলের নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি তার এক ডকুমেন্টারি সম্প্রতি প্রকাশ করেছেন। যেখানে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের একটি বিলাসবহুল প্রাসাদের ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে।

ঐ ডকুমেন্টারিতে দাবি করে হয়েছে যে, প্রাসাদটির মূল্য ১৩৭ কোটি ডলার এবং ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঙ্কের ঘুষ হিসেবে পুতিনকে এই অর্থ প্রদান করা হয়েছে।

গত ১৯ জানুয়ারি ইউটিউবে প্রকাশিত ডকুমেন্টারিটি ৩ দিনের মধ্যেই প্রায় ৭ কোটিবার দেখা হয়েছে। এদিকে এইপ্যালেসের মালিক পুতিন নয় বলে দাবি করেছে ক্রেমলিন।

কৃষ্ণ সাগরের উপকূল সংলগ্ন বিশাল প্রাসাদটি সরকারি নিরাপত্তা কর্মকর্তারা পাহাড়া দিচ্ছেন এমন দাবিকে ‘পুরোপুরি অর্থহীন’ বলে দাবি করেছেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ। নাভালনির ডকুমেন্টারিতে দাবি করা হয় এই সম্পত্তির এলাকা ইউরোপের দেশ মোনাকোর চেয়ে ৩৯ গুণ বড়।

গত ১৭ জানুয়ারি জার্মানি থেকে রাশিয়ায় ফেরার পর জামিনের নীতি লঙ্ঘনের অভিযোগে গ্রেফতার হন অ্যালেক্সেই নাভালনি। গত আগস্টে বিষ প্রয়োগের ফলে নাভালনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। কোমায় চলে গেলে দুই দিন পরে তাকে জার্মানি নিয়ে যাওয়া হয়। দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর এখন অনেকটাই সুস্থ তিনি। জার্মানি, ফ্রান্স ও সুইডেনের ল্যাবে পরীক্ষা করে নাভালনিকে বিষ প্রয়োগের সত্যতা প্রমাণিত হলেও তা মানতে নারাজ ক্রেমলিন।

ইত্তেফাক/এআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x