ধর্ষণ মামলায় আদালতে জবাব দিতে হবে ট্রাম্পকে

ধর্ষণ মামলায় আদালতে জবাব দিতে হবে ট্রাম্পকে
ছবি: সংগৃহীত

বিপদ পিছু ছাড়ছে না সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। সিনেটে অভিশংসনের হাত থেকে রক্ষা পেলেও সুপ্রিম কোর্টে আয়কর রিটার্নের মামলায় হেরে গেছেন। এবার ধর্ষণ মামলায়ও তাকে আদালতে যেতে হচ্ছে। লেখিকা ই জিন ক্যারোলের করা ধর্ষণ মামলায় ট্রাম্পকে আদালতে গিয়ে জবাব দিতে হবে। খবর ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের

ক্যারোলের আইনজীবীরা মামলাটি পুনরায় সচল করতে জোর তত্পরতা শুরু করছেন। ১৯৯০-এর দশকে নিউ ইয়র্কের ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে ট্রাম্প কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন ক্যারোল। ২০১৯ সালের নভেম্বরে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এ নিয়ে মানহানির মামলা করেছিলেন ক্যারোল।

তখন ট্রাম্প এই তথ্যকে মিথ্যা দাবি করেছিলেন। আর তার আইনজীবীরা দাবি করেছিলেন, প্রেসিডেন্ট হওয়ায় ট্রাম্প এসব অভিযোগ থেকে মুক্ত। কিন্তু এখন ট্রাম্প আর প্রেসিডেন্ট পদে নেই। তাই ক্যারোলের আইনজীবীরা জানিয়েছেন, তারা শিগগিরই এ নিয়ে জোর তত্পরতা শুরু করছেন। এমনকি ক্যারোলের সেই পোশাক ও ট্রাম্পের ডিএনএ পরীক্ষা করারও দাবি করেছেন আইনজীবীরা। ক্যারোল সেই পোশাক এখনো সংরক্ষিত রেখেছেন।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে ট্রাম্পের আইনজীবীরা এই মামলাকে খারিজ করতে বা বিলম্ব ঘটাতে অনেক প্রচেষ্টা চালান। তখন বিচার বিভাগও ট্রাম্পের পক্ষে যায়। কিন্তু এখন প্রেসিডেন্ট বাইডেনের অধীনে বিচার বিভাগ আগের মতো ট্রাম্পের পক্ষে লড়াই করবে কি না তা জানা যায়নি। কারণ এখনো বাইডেনের মনোনীত অ্যাটর্নি জেনারেল সিনেটের নিয়োগ পাননি।

এছাড়া সামার জারভোস নামের এক নারীও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছিলেন। চলতি মাসের শুরুর দিকে তার আইনজীবীরাও আবার সেই মামলা সচল করার উদ্যোগ নিয়েছেন।

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x