মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের নিন্দায় জি ৭

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের নিন্দায় জি ৭
ছবি: সংগৃহীত

মিয়ানমারে সেনাশাসনের প্রবল নিন্দা জানিয়েছে গ্রুপ অব সেভেন বা জি-৭। এ গ্রুপে আছে আমেরিকা, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি ও জাপান। জি-৭-এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালানোর সিদ্ধান্ত কোনোভাবে মানা যায় না। তাদের আবেদন, সেনাবাহিনী যেন খুবই সংযত থাকে এবং মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলে। এদিকে আজ প্রথম বারের মিয়ানমার সফরে যাচ্ছেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সেনা অভ্যুত্থানের পর এটাই প্রথম বিদেশি কোনো শীর্ষ কূটনীতিকের সফর। খবর ডয়চেভেলে ও কাঠমান্ডু পোস্টের

সেনাবাহিনী দেশের শাসনভার নিয়ে নেওয়ার পর থেকে মিয়ানমারের শহরগুলোতে লাগাতার বিক্ষোভ চলছে। গণতন্ত্রের দাবিতে এবং তাদের নেত্রী সু চিসহ অন্যদের মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ অব্যাহত আছে। সেনাশাসকরা জরুরি অবস্থা জারি করেছেন এবং এক বছরের মধ্যে নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সেসঙ্গে তারা জোর করে বিক্ষোভ থামানোর চেষ্টা করছেন। সোমবার দেশ জুড়ে বিশাল বিক্ষোভ হয়েছিল। মঙ্গলবারও বিক্ষোভ হয়েছে, তবে তা আগের দিনের তুলনায় ছোট ছিল।

মিয়ানমার সরকারের একটি গোপন নথি প্রকাশ হয়েছে, যেখানে দেখা গেছে, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেটনো মারসুদি আজ বৃহস্পতিবার মিয়ানমার সফরে যাচ্ছেন। তিনি জানিয়েছেন, মিয়ানমারে উভয়পক্ষের সঙ্গে তিনি কথা বলবেন। গণতন্ত্রপন্থিরা তার এই সফরকে স্বাগত জানাচ্ছে না। তারা বলছে, বিদেশিরা সরকারের সঙ্গে চুক্তি বা সমঝোতা করলে তা তাদের আন্দোলনের জন্য সুফল বয়ে আনবে না। তারা বরং বিদেশিদের সেনা সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করার আহ্বান জানিয়েছে।

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x