ইসলাম নিয়ে ইমরান খানের দ্বিমুখী আচরণ   

ইসলাম নিয়ে ইমরান খানের দ্বিমুখী আচরণ   
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান । ছবি: সংগৃহীত

স্থানীয় ধর্মীয় নেতাদের চাপে ইসলামের প্রতি নিজের ধর্মভীরুতা প্রমাণ করছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। যে কোনো মূল্যে পাকিস্তানকে মদিনার আদলে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। এ জন্য ইমরান খান ইসলামাবাদে স্কুলগুলোতে আরবি ভাষা বাধ্যতামূলক করেছে। এছাড়া পাঞ্জাবে পাকিস্তানবিরোধী আধেয় থাকায় ১০০টি বই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া খাইবার পাখতুনখোয়ায় ধর্মীয় ইমামদের বেতন বাড়িয়ে ১০ হাজার রুপি থেকে ২০ হাজার রুপি করা হয়েছে। আর এ সবই করা হয়েছে পাকিস্তানের ধর্মীয় দলগুলোর চাপের মুখে পড়ে।

অভিযোগ রয়েছে যে পাকিস্তানে উগ্রবাদে পৃষ্ঠপোষক করছেন ইমরান খান। ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য রাজনীতি এবং ধর্মকে মিশিয়ে ধর্মীয় দলগুলোর সমর্থন পেতে চাইছেন যা পাকিস্তানকে একটি বিপজ্জনক দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

অনেক পশ্চিমা দেশেই ইসলামের ধর্মীয় ব্যক্তিদের নিয়ে বিতর্কিত কার্টুন আকছে যা খুব নিন্দনীয়। মূলত দীর্ঘকালীন স্বার্থের কথা চিন্তা করে একটি দেশের শাসক দল পররাষ্ট্রনীতি তৈরি করে। এ জন্যই উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন চালানোর পরেও পাকিস্তান চীনের উইঘুর মুসলিম ইস্যুতে কোনো প্রতিবাদ জানায় না। বর্তমান বিশ্বে পাকিস্তানের সন্ত্রাসবিরোধী প্রতীক মালালা ইউসুফজাই। সম্প্রতি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র এহসানউল্লাহ এহসান একটি টুইট বার্তা মালালাকে ভণ্ড বলে আখ্যা দিয়েছেন। ফ্রান্স ইসলাম বিদ্বেষী বিল তৈরি করে মুসলমানদের সঙ্গে বৈষম্য করেছে কিন্তু কয়টি মুসলিমদেশের নেতা এর প্রতিবাদ জানিয়েছে?

ইত্তেফাক/এআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x