ব্রিটিশ মিডিয়া আমার মানসিক স্বাস্থ্য ভেঙে দিয়েছে: প্রিন্স হ্যারি

ব্রিটিশ মিডিয়া আমার মানসিক স্বাস্থ্য ভেঙে দিয়েছে: প্রিন্স হ্যারি
ছবি: সংগৃহীত

প্রিন্স হ্যারি এখন আর ব্রিটিশ রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্য নন। তিনি আর্থিকভাবে স্বাধীন হওয়ার জন্য এক বছর আগে রাজপরিবারের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন। এবার তিনি জানিয়েছেন, রাজপরিবারের জীবন ছেড়েছেন ব্রিটিশ গণমাধ্যমের জন্য। কারণ, কিছু সংবাদমাধ্যম তার মানসিক স্বাস্থ্য শেষ করে দিয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্রে ‘দ্য লেট লেট শো’-এর উপস্থাপক জেমস কর্ডেনকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি এ কথা বলেছেন। খবর সিএনএনের

হ্যারি বলেন, বিষাক্ত মিডিয়ার কারণে রাজপরিবার ছাড়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। একজন স্বামী ও বাবা যা করতেন আমিও সেই কাজটাই করেছি। সেখান থেকে আমার পরিবারকে বের করাটা জরুরি ছিল। প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেল দম্পতি এখন যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন। কিছুদিন আগেও তারা ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন। কারণ মেগানকে নিয়ে অনেক বর্ণবাদী কথা বলেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম।

সম্প্রতি মেগান একটি ট্যাবলয়েডের বিরুদ্ধে মামলায় জিতেছেন। হ্যারি জানান, তিনি রাজপরিবার ছাড়লেও মানুষের জন্য কাজ করে যাবেন। তিনি বলেন, আমি পদত্যাগ করিনি বরং সরে দাঁড়িয়েছি। সাক্ষাত্কারে স্ত্রী মেগান ও ছেলে আর্চিকে নিয়েও কথা বলেন তিনি। হ্যারি দম্পতি দ্বিতীয় সন্তানের বাবা-মা হতে চলেছেন।

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x